অর্থনীতি

ফুলবাড়ী সেটেলমেন্ট অফিসে অনিয়ম দূর্নীতি

দিনাজপুরের ফুলবাড়ী সেটেলমেন্ট অফিসে দালাল ফড়–য়াদের তৎপরতা বৃদ্ধি, সাধারণ মানুষের ভোগান্তি। অনিয়ম দূর্নীতি, দেখার কেউ নেই। দিনাজপুরের ফুলবাড়ী সেটেলমেন্ট অফিসে এক যুগ ধরে চলছে জমি জমার মাঠ পর্চার কাজ। ৩০ ধারা, শুনানিতে বাদি বিবাদির নিকট থেকে হাতিয়ে নিচ্ছে হাজার হাজার টাকা। কাগজ বৈধ থাকলেও তাদেরকে মাসের পর মাস হয়রাণি করা হচ্ছে। দেওয়া হচ্ছে না মাঠ পর্চা। আবার অনেকে অবৈধ জাল দলিলের কাগজপত্র জমা দিয়েও পার পেয়ে যাচ্ছে উৎকোচের বিনিময়ে। দীর্ঘ ১ যুগ ধরে ফুলবাড়ী উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার জরিপের কাজ শুরু হয়। শুরু থেকেই চলছে অনিয়ম দূর্নীতি। বর্তমান বেশকিছু ইউনিয়নে মাঠ পর্চার কাজ চলছে। মাঠ পর্চার কাজে বাদী বিবাদীরা কেউ ৩০ ধারায় আবেদন করেছে। যার কাগজপত্র ঠিক আছে তাকেও হয়রাণি করছে। অপরদিকে সেটেলমেন্ট অফিসের কতিপয় দালাল, অফিসের কর্মকর্তাদের ম্যানেজ করে বিবাদীকে মাঠ পর্চা দেওয়ায় দুপক্ষের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হচ্ছে। অযথা সাধারণ মানুষকে হয়রাণি করা হচ্ছে বলে জানান ভুক্তভূগিরা। জানাযায়, ফুলবাড়ী উপজেলার শিবনগর ইউপির চককবির গ্রামের হরিপদ পালের স্ত্রী বুলবুলি রাণীর চককবির মৌজার ১৬৬ খতিয়ান ১.১৩ একর জমির ৩টি পর্চার আলাদা আলাদা খতিয়ান করে পর্চা দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু গত ২৩/০১/২০১৭ ইং তারিখে ফুলবাড়ী সেটেলমেন্ট অফিসের মোঃ মোশররফ হোসেন ৩ হাজার টাকা নিয়ে আলাদা খতিয়ান খুলে পর্চা না দিয়ে পুরাতুন খতিয়ানে অংশ বসিয়ে দেন। এ ব্যাপারে গতকাল মঙ্গলবার বুলবুলি রাণি পালের সাথে মোবাইল ফোনে কথা বললে তিনি জানান, উক্ত অফিসের মোঃ মোশাররফ হোসেন পৃথক পৃথক পর্চা দেওয়ার কথা বলে  ৩ হাজার টাকা উৎকোচ গ্রহণ করেন। কিন্তু একই পর্চায় সবার নাম দেন। উক্ত সেটেলমেন্ট অফিসে এলাকার শত শত মানুষ দালাল খপ্পরদের পড়ে সর্বশান্ত হচ্ছে। বর্তমান উক্ত সেটেলমেন্ট অফিসে শিবনগর ইউপির সদস্য মজনু হক, মোঃ মোশাররফ হোসেন, বেতদিঘী ইউপির মোঃ আব্দুল আলিম, খয়েরবাড়ী ইউপির শ্রী লিটন কুমার সহ আরও বেশ কয়েকজন দালাল রিতিমত টাকার বিনিময়ে অবৈধকে বৈধ আর বৈধকে অবৈধ করে দিচ্ছেন। এমন অভিযোগ এলাকাবাসীর রয়েছে। ফুলবাড়ী উপজেলার অনেকে কয়েক যুগ আগে এবং স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় ভারতে বা পাকিস্থানে চলে গেছেন এবং অনেকে মারা গেছেন তাদের নামের জমির জাল দলিল সৃষ্টি করে প্রভাবশালীরা মাঠ পর্চা নিয়েছেন এমন অভিযোগ রয়েছে।     এছাড়া উক্ত অফিস থেকে প্রতিদিন ৪০ থেকে ৫০ জন জমি জমার মালিক কে ৩০ ধারা শুনানিতে নোটিশ প্রদান করে। তারা নোটিশ পাওয়া মাত্র সেটেলমেন্ট অফিসে এলে তাদের কে হাজিরা দিতে হয়। এ সময় প্রতি নোটিশের হাজিরায় ৫০ টাকা করে নেওয়া হচ্ছে। এমন অভিযোগ করেছেন সুলতানপুর গ্রামের প্রদীপ, সুনিল চন্দ্র, মধ্য সুলতান পুরের বুলবুল সহ অনেকে। এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী সহ কারী সেটেলমেন্ট অফিসার মোঃ আফসার আলীর সাথে কথা বললে তিনি জানান, উক্ত অফিসে কর্মরত তারা কেউ এই অফিসের নিয়োগ প্রাপ্ত কর্মচারী নয়। তারা আমাদেরকে সহযোগীতা করেন। তবে তাদের বিরুদ্ধে অনিয়ম দূর্নীতির কোন অভিযোগ পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এদিকে অভিযোগ উঠেছে ফুলবাড়ী সেটেলমেন্ট অফিসে কর্মরত বেশ কয়েকজন দালাল অনিয়ম দূর্নীতির মাধ্যমে আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হয়েছেন। তাদের কারণে সাধারণ মানুষ উক্ত অফিসে সুষ্ঠু ভাবে কাজ করতে পারছে না। তাদের মাধ্যমে উৎ কোচের টাকা চলে যায় কর্মকর্তাদের পকেটে। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগীরা দালাল ও দূর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ভূমি মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

  • ২০৪১ সাল নাগাদ এশিয়ার অর্থনীতির কেন্দ্রবিন্দু হবে বাংলাদেশ

    বাংলাদেশ ২০৪১ সাল নাগাদ এশিয়ার অর্থনীতির কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বুধবার রাজধানীর একটি হোটেলে ২০৩০ ও পরবর্তী অর্থনীতি শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদানকালে তিনি এই আশাবাদ ব্যক্ত করেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, সারাদেশে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলা হবে। যেখানে সেখানে শিল্প গড়ে উঠবে না। এতে বিদেশি বিনিয়োগ আরও বাড়বে। এছাড়া বাংলাদেশকে উন্নত অর্থনীতির দেশ গড়ার জন্য সরকার সুদূরপ্রসারী কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। শেখ হাসিনা বলেন, আমরা এমডিজি অর্জনে যেমন সফলতা অর্জন করেছি তেমনি এসডিজি অর্জনেও সফলতা অর্জন করব। এমডিজি অর্জনে বাংলাদেশ বিশ্বে রোল মডেলে পরিণত হয়েছে। আশা করি, এসডিজি অর্জনের আমরা রোল মডেলে পরিণত হবো। তিনি জানান, ২০২১ সালের মধ্যে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে যাবে। কেউ অন্ধকারে থাকবে না। দারিদ্র্যের সীমা আমরা কমিয়ে এনেছি, আরও কমানো হবে। ২০৪১ সালের মধ্যে মাথাপিছু আয় ১২ হাজার ৬০০ ডলারে উন্নীত হবে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। আসুন আমরা সবাই মিলে জাতির পিতার সোনার বাংলা গড়তে একসঙ্গে কাজ করি।

  • ফুলবাড়ীতে হিরোইনসহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক

    দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে থানা পুলিশের হাতে হিরোইন সহ ১ মাদক ব্যবসায়ী আটক। গত বুধবার দিবাগত রাতে, সোয়া এক গ্রাম হিরোইন সহ নির্মল চন্দ্র (৩৫) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে । পুলিশের হাতে আটক, মাদক ব্যবসায়ী নির্মল চন্দ্র, পৌর শহরের ৮ নং ওয়ার্ড এলাকার কাটাবাড়ী গ্রামের মৃত নিতাই চন্দ্র রায় এর পুত্র। এই ঘটনায় ফুলবাড়ী থানার এসআই এসরাকুল বাদি হয়ে ১৯৯০ সালের বিশেষ ক্ষমতা বলে, ওই দিনে ফুলবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোকসেদ আলী বলেন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার রাত ১০ টায়, পৌর এলাকার কাটাবাড়ী এলাকায় অভিযান চালিয়ে, সোয়া এক গ্রাম হেরোয়িনসহ ধৃত নির্মল চন্দ্রকে আটক করা হয়।

  • আটোয়ারীতে কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত

    পঞ্চগড়ের আটোয়ারীতে উপজেলা কৃষি দপ্তরের আয়োজনে গতকাল সোমবার (১২ ডিসেম্বর) তোড়িয়া ইউনিয়নের মধ্য দাড়খোর আইএফএমসি কৃষক মাঠ স্কুলে জাঁকজমকপুর্ণভাবে মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়। এলাকার আদর্শ কৃষক মোঃ ইয়াকুব আলীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিভিন্ন প্রদর্শনী প্লট পরিদর্শন করে করে কৃষকদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু রাফা মোহাম্মদ আরিফ। অনুষ্ঠানের শুরুতে উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ শামীম ইকবাল স্বাগত বক্তব্যে বলেন, ২০ জুন ২০১৬ থেকে ০৩ ডিসেম্বর ২০১৬ তারিখ পর্যন্ত ৬ মাসে ৪৭ টি সেশনে ৫০ জন কৃষক-কৃষাণীকে নিয়ে বিভিন্ন বিষয়ে হাতে কলমে প্রশিক্ষন দেয়া হয়। এরমধ্যে উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো ধানচাষ, বসতবাড়ির বাগান, গরু পালন, মাছ চাষ, মুরগী পালন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বকব্য দেন উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন কর্মকর্তা মোছাঃ নুরজাহান খাতুন। আলোচনা শেষে প্রশিক্ষনার্থীদের মাঝে আনুষ্ঠানিকভাবে সনদপত্র সহ পুরস্কার বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন কৃষক মাঠ স্কুলের ফ্যাসিলিটেটর মোঃ আব্দুর রহমান। অনুষ্ঠানে উপজেলা কৃষি দপ্তরের কর্মকর্তা- কর্মচারী, জনপ্রতিনিধি, এলাকার কৃষক-কৃষাণী সহ গণমাধ্যম কর্মীগন উপস্থিত ছিলেন।

আন্তর্জাতিক

অভিবাসন নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন মেয়ররা

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিবাসন নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন ছোট-বড় শহরগুলোর মেয়ররা। ট্রাম্প নিজের বহুল পরিকল্পিত অভিবাসন নীতি সংস্কারে সহযোগিতা না করলে নগরগুলোকে অর্থ যোগান দেওয়া হবে না জানিয়ে আদেশ জারির পরও তার বিরুদ্ধে এ প্রতিবাদ চলছে। নিউইয়র্ক, লস অ্যাঞ্জেলেস, শিকাগো, বোস্টন, টেক্সাস, নিউ হ্যাভেন, সাইরাক্রজ ও অস্টিনের মতো শহরগুলোর মেয়ররা ট্রাম্পের আদেশের জবাবে উল্টো বলেছেন, প্রেসিডেন্ট এ ধরনের অবস্থানে চলে গেলে তারাও সমানভাবে লড়াই করবেন। কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক সংবাদ সম্মেলনে নিউইয়র্ক নগরীর মেয়র বিল ডে ব্লাসিও বলেন, “আমরা আমাদের জনগণকে সুরক্ষা দিতে সব রকমের পদক্ষেপ নেবো। তারা কোথা থেকে এলো বা তাদের ধর্ম কী সেটা দেখা আমাদের বিবেচ্য নয়। আর শিকাগোর মেয়র রাম এমানুয়েল ঘোষণা দেন, “আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই; আমরা একটি নিরাপদ শহরে থাকছি। আমাদের মধ্যে কোনো অপরিচিত নেই। তিনি নগরবাসীকে আশ্বস্ত করে বলেন, “তুমি যদি আমেরিকা গড়ার স্বপ্ন দেখো তবে স্বাগত, তুমি কি পোল্যান্ড না পাকিস্তান থেকে এলে, নাকি আয়ারল্যান্ড, ইন্ডিয়া বা ইসরায়েল থেকে এলে, নাকি মেক্সিকো বা মলদোভা থেকে এলে, অথবা তোমার দাদা-নানারা কোথা থেকে এসেছেন তা আমেরিকানদের কাছে বিবেচ্য নয়। অনুমোদন ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত অভিবাসীদের আটক করে কেন্দ্রীয় কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দিতে ট্রাম্প সম্প্রতি ওই আদেশ জারি করেন। তার জবাবে ক’দিন ধরে শহরগুলোর মেয়র ও কর্মকর্তারা এ ধরনের বক্তব্য দিয়ে আসছেন। তাদের এই জবাবের মধ্যেই শুক্রবার (২৮ জানুয়ারি) অভিবাসন বিষয়ে একটি নির্বাহী আদেশ জারি করেন ট্রাম্প। সেই আদেশের আওতায় মার্কিন মুলুকে যেকোনো ধরনের শরণার্থী প্রবেশ বন্ধ থাকবে আগামী ৪ মাস। আর সিরিয়ার ক্ষেত্রে এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর থাকবে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত। ট্রাম্প তার আদেশে সিরিয়া ছাড়াও মুসলিমপ্রধান আরও ৬টি দেশের ভিজিটর বা দর্শনার্থী প্রবেশ পর্যন্ত বন্ধ করে দিয়েছেন ৩ মাসের জন্য। সে ৬টি দেশ হলো ইরাক, ইরান, ইয়েমেন, লিবিয়া, সোমালিয়া ও সুদান। কেন্দ্রীয় সরকারের কার্যক্রমে বাধ্য করতে ট্রাম্পের ওই আদেশ জারির পর সান ফ্রান্সিসকোর মেয়র এড লি আরেক শহর ওকল্যান্ডের মেয়র  লিবি স্কফের সঙ্গে যৌথভাবে দেওয়া বিবৃতিতে বলেন, “আমরা কোনো হুমকি বা রাজনৈতিক প্রভাবে আত্মসমর্পণ করবো না। আজ এই উপসাগরীয় এলাকা সত্যিকারার্থে আমাদের অংশগ্রহণমূলক মূল্যবোধ, সমবেদনা ও সমতার প্রশ্নে এক সারিতে দাঁড়িয়েছি। আমরা আমাদের বাসিন্দা, শহর ও দেশকে বিভাবিজত করার যেকোনো অপচেষ্টার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ। বোস্টনের মেয়র মার্টিন জে ওয়ালশ বলেছেন সবচেয়ে কড়া কথা,  আজ যারা হুমকিবোধ করছো, বিপদ শঙ্কায় ভুগছো তোমরা বোস্টনে নিরাপদ। তোমাদের সুরক্ষিত রাখতে আমরা সাধ্যের মধ্যে সবকিছু করবো। প্রয়োজনে আমরা নগর হলকে তোমাদের আশ্রয়কেন্দ্র বানাবো। এমনকি নিজের অফিসকেও অভিবাসীদের জন্য আশ্রয়কেন্দ্র বানানোর কথা বলেন ওয়ালশ। বোস্টন মেয়র বলেন, “তারা আমার অফিস ব্যবহার করতে পারে, এই ভবনের যেকোনো অফিস তারা ব্যবহার করতে পারে। তারা এই ভবনকে নিরাপদ আশ্রয়স্থল ভাবতে পারে। এদিকে ট্রাম্পের ওই আদেশ জারির পর ক্যালিফোনিয়ার সিনেটরদের একটি দল জানিয়েছে, তারা সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এরিক হোল্ডারের সঙ্গে আলাপ করে আদালতে আশ্রয় নেবেন। তারা মনে করেন, স্থানীয় সরকারকে প্রভাবিত করতে ট্রাম্পের এই আদেশ সংবিধানের ১০ম সংশোধনীর লঙ্ঘন।

  • আজ রাতে মোদীর সঙ্গে কথা বলবেন ট্রাম্প

    মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদে ডোনাল্ড ট্রাম্পের শপথগ্রহণের পর থেকেই তাঁর নীতি কী হবে, এর প্রভাব ভারতের ওপর কী হবে, তা নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে। শপথগ্রহণের মঞ্চে ট্রাম্পের বক্তৃতা থেকে বিভিন্ন বার্তা ভারতের কাছে এসে পৌঁছেছে, দুশ্চিন্তার মেঘ দেখা গেছে ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলোতে। তবে আপাতত সমস্ত জল্পনায় জল ঢেলে, আজ রাতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে কথা বলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর এই আলাপচারিতা থেকে কূটনৈতিক মহলের আশা সর্বস্তরে দু দেশের মধ্যে সম্পর্ক আরও দৃঢ় হবে। ট্রাম্পের মঙ্গলবারের সারাদিনের একটি রুটিন প্রকাশ করা হয়েছে হোয়াইট হাউসের তরফে। সেখানেই জানা গিয়েছে ভারতীয় সময় আজ রাত সাড়ে এগারোটার সময় মোদীর সঙ্গে কথা বলবেন ট্রাম্প। এর আগে মোদী শেষবার ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলেছিলেন নভেম্বরে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদের জন্যে লড়াইয়ে যখন তিনি হিলারি ক্লিন্টনকে হারিয়ে প্রেসিডেন্ট পদের জন্যে নির্বাচিত হয়েছিলেন। জানুয়ারির ২০, ২০১৭ প্রেসিডেন্ট পদে শপথগ্রহণ করেন ট্রাম্প। ওয়াশিংটনে ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রদূত নিরুপমা রাওয়ের এই আসন্ন বৈঠক প্রসঙ্গে মন্তব্য, ভারত সরকারের একমুহূর্ত সময় নষ্ট না করে, এই আলাপচারিতাকে দু দেশের সার্বিক উন্নয়নের জন্যে ব্যবহার করা। অথচ সূত্রের খবর, নয়াদিল্লি এখনও কিছুটা দ্বন্দ্বে রয়েছে, ট্রাম্প পরিচালিত মার্কিন সরকার ভারতের প্রসঙ্গে কী ভাবনা-চিন্তা করছে। প্রসঙ্গত, ট্রাম্প তাঁর শপথ বক্তৃতায় ভারতের সঙ্গে মার্কিন বিদেশনীতির উন্নতি নিয়ে তেমন আশাব্যঞ্জক কিছু শোনাননি। বরং তিনি মার্কিনবাসীকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, তাঁদের থেকে হারিয়ে যাওয়া কাজের সুযোগ, ফের তাঁদের ফিরিয়ে দেবেন। এর সঙ্গে তিনি সারা বিশ্বের সামনে ‘বাই আমেরিকান, হায়ার আমেরিকান’ নীতির স্বপক্ষে সওয়াল করেছেন, আর সেটা মোটেই ভারতের জন্যে সুখবর নয়। এমনকি তিনি ভারতের কল সেন্টার কর্মীদের ইংরাজি উচ্চারণকে কটাক্ষ করতেও ছাড়েননি। এছাড়া অভিবাসীদের মার্কিন মুলুকে প্রবেশ রুখতে গ্রিন কার্ড ইস্যু আপাতত বন্ধের ভাবনা রয়েছে ট্রাম্পের। একইসঙ্গে এইচ-ওয়ান বি ভিসার নিয়মকাননের ক্ষেত্রে পরিবর্তন আনতে চাইছেন তিনি। এরফলে মার্কিন সংস্থাগুলো তুলনায় কম বেতন দিয়ে বিদেশ থেকে কর্মী নিয়োগ করতে পারবে না। প্রসঙ্গত, ভারতীয়রাই সবচেয়ে বেশি এইচ-ওয়ান বি ভিসা ব্যবহার করতেন।

  • নাফটা চুক্তি নিয়ে বৈঠক করবেন ট্রাম্প

    সদ্য দায়িত্ব নেওয়া মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প শিগগিরই মেক্সিকো ও কানাডার সঙ্গে উত্তর আমেরিকা মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি (নাফটা) নিয়ে বৈঠক করবেন। প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়ার পর রবিবার তিনি হোয়াইট হাউসের শীর্ষ কর্মকর্তাদের একথা বলেছেন। ৩১ জানুয়ারি ট্রাম্প মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট এনরিক পেনা নিয়েতোকে অভ্যর্থনা জানাবেন এবং শিগগিরই কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর সঙ্গে বৈঠক করবেন বলে আশা করা হচ্ছে। হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। রবিবার হোয়াইট হাউসের সিনিয়র স্টাফদের উদ্দেশ্যে বক্তৃতাকালে ট্রাম্প বলেন, ‘আমরা নাফটা নিয়ে পুনরায় আলোচনা শুরু করতে যাচ্ছি।’ একদিন ট্রাম্প টেলিফোনে পেনা নিয়েতো ও জাস্টিন ট্রুডোর সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় তারা উত্তর আমেরিকায় অর্থনৈতিক সংহতি জোরদারে একমত হন। নির্বাচনি প্রচারণাকালে ট্রাম্প অঙ্গীকার করেছিলেন, তিনি নির্বাচিত হলে গত ২২ বছরের পুরানো নাফটা চুক্তিকে যুক্তরাষ্ট্রের জন্য আরো সহায়ক করতে পুনরায় আলোচনা শুরু করবেন। হোয়াইট হাউসের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত ট্রাম্পের আমেরিকা ফার্স্ট ফরেন পলিসিতে বলা হয়েছে, ‘প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প নাফটা নিয়ে পুনরায় আলোচনা করতে অঙ্গীকারবদ্ধ। যদি আমাদের অংশীদাররা আলোচনা করতে অস্বীকৃতি জানায়, তাহলে আমেরিকা যেটা সঠিক সেটাই করবে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প নাফটা থেকে সরে আসার যুক্তরাষ্ট্রের অভিপ্রায়ের নোটিশ দেবেন।’ গত নভেম্বরে ট্রাম্প বিজয়ী হওয়ার পর মেক্সিকো ও কানাডা নাফটা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনার আগ্রহের কথা ঘোষণা করে। বেশিরভাগ রফতানি পণ্য শুল্কমুক্ত ও শুল্ক হ্রাসের লক্ষ্যে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ রফতানি বাণিজ্য চুক্তি নাফটা স্বাক্ষর করা হয়। ১৯৯৪ সালে এটি কার্যকর হয়।

  • সার্কের কার্যকারিতা শেষ হয়ে যায়নি: প্রধানমন্ত্রী

    সাউথ এশিয়ান এসোসিয়েশন ফর রিজিওনাল কো-অপারেশন (সার্ক)-এর কার্যকারিতা হারানোর অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সুইজারল্যান্ডের ডাভোসে কংগ্রেস সেন্টারে অনুষ্ঠিত ওয়ার্ল্ড ইকনোমিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) ৪৭তম বার্ষিক সম্মেলনে দক্ষিণ এশিয়ায় হারনিসিং রিজিওনাল কো-অপারেশন বিষয়ক একটি ইন্টারেক্টিভ সেশনে মতবিনিময়কালে একথা বলেন। এই ইন্টারেক্টিভ সেশনে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রেনিল উইক্রিমিসিঙ্গী, ভারতের বাণিজ্যমন্ত্রী ও শিল্পমন্ত্রী নির্মলা সীতারামান ও সার্কভুক্ত বিভিন্ন দেশের জনপ্রতিনিধি এবং সুশীল সমাজের সদস্যগণ যোগদান করেন। শেখ হাসিনা বলেন, সার্কের কার্যকারিতা এখনো শেষ হয়ে যায়নি। আট জাতির এই আঞ্চলিক সংস্থাটি খুব ভালোভাবে সক্রিয় আছে। আমি মনে করি দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য এর মাধ্যমে আরো অনেক কাজ করার সুযোগ রয়েছে। তিনি বলেন, ব্যবসা-বাণিজ্যকে গতিশীল করতে সাফটা শক্তিশালী হচ্ছে। বৃহত্তর পরিসরে দক্ষিণ এশিয়ার সঙ্গে চীনকে একীভূত করার জন্য বিসিআইএম-ইসি ফোরাম গঠন করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, দারিদ্র্য নির্মূলে কাজ করার সুবিধার জন্য আমরা বিবিআইএন, বিসিআইএম-ইসি ও বিমসটেক ফোরাম প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ অঞ্চলে টেলিযোগাযোগ উন্নয়নের জন্য কক্ষপথে একটি সার্ক স্যাটেলাইট চালু করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

শিক্ষাঙ্গন

আটোয়ারীতে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

“ শিক্ষার আলো জ্বালবো-ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ব” প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে পঞ্চগড়ের আটোয়ারীতে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ পালন করা হয়েছে। জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষে উপজেলা পরিষদের আয়োজনে গতকাল রবিবার (২৯ জানুয়ারি) সকালে ব্যানার ফেস্টুন সহ একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী উপজেলা পরিষদ চত্বর হতে বের হয়ে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে। র‌্যালী শেষে উপজেলা পরিষদ চত্বরে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি মোঃ জাহেদুর রহমানের সঞ্চালনায় এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে পরামর্শমুলক বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আব্দুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন সুলতানা, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানদ্বয় মোঃ শাহাজাহান, মীরা রাণী, আটোয়ারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আমিনুল ইসলাম, উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ আব্দুল লতিফ প্রমুখ।

  • দিনাজপুর এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

    দিনাজপুর শহরের অ্যাডভান্স প্রাইভেট সেন্টার এর এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায়ী সংবর্ধনা উপলক্ষে দোয়া, আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ২৮ জানুয়ারী শনিবার দিনাজপুর শহরের অ্যাডভান্স প্রাইভেট সেন্টার এর পরিচালক মোঃ সাহিদুল ইসলাম বিদায়ী এসএসসি পরীক্ষার্থীদের হাতে উপহার ও ফুল দিয়ে বিদায়ী সংবর্ধনা প্রদান করেন। এবারে অ্যাডভান্স প্রাইভেট সেন্টারে এস.এস.সি ২০১৭ বিদায়ী ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে মডেল পরীক্ষায় অংশ গ্রহণকারী ২৯০ জন ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে সুপার ষ্টার ৩জন ছাত্র-ছাত্রীকে “ল্যাপটপ” প্রদান করা হয়েছে। তারা হলেন দিনাজপুর জিলা স্কুলের মোঃ উসমান গণি (হামিম), দিনাজপুর সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের মোছাঃ নাসরিন সুলতানা ও দিনাজপুর চেহেলগাজী শিক্ষা নিকেতন স্কুল এন্ড কলেজ এর মোছাঃ রুবিনা তাজিন। এ ছাড়া ১৩ জন ছাত্র-ছাত্রীকে বিশেষ পুরস্কার প্রদানসহ সকল শিক্ষার্থীকে শান্তনা উপহার প্রদান করা হয়েছে। অনুষ্ঠানের শুরুতে দোয়া অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ফকিরপাড়া মাদ্রাসার মোঃ ইলিয়াস হোসেন।

  • সুন্দর জীবন গড়তে শিক্ষার্থীদের মাদক থেকে বিরত থাকতে হবে

    তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেছেন, সুন্দর জীবন গড়তে হলে শিক্ষার্থীদের মাদক দ্রব্য থেকে বিরত থাকতে হবে। সমাজের ভাইরাস মাদকের নেশার স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছে শিক্ষার্থীরা। বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত রুপকল্প ২০২১ বাস্তবায়ন করতে হলে সুস্বাস্থ্যবান একটি প্রজন্ম গড়ে তুলতে হবে। তার জন্য লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলার বিকল্প নাই। বর্তমান সরকার ক্রীড়াঙ্গনকে শক্তিশালী করতে দিন-রাত কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছে। শনিবার বেলা ১০টায় নাটোরের সিংড়া পৌর শহরের দমদমা পাইলট স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে বার্ষিক ক্রীড়া,সাহিত্য,সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, পৌর মেয়র মোঃ জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাদেকুর রহমান, দমদমা পাইলট স্কুল এন্ড কলেজ এর অধ্যক্ষ আনোয়ারুল ইসলাম প্রমুখ।এরপরে প্রতিমন্ত্রী উপজেলা কৃষি ভবন হলরুমে উপজেলা আইন শৃংখলা কমিটির সভায় যোগদান করেন। ইউএনও সাদেকুর রহমানের সভাপতিত্বে এসময় সভায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, পৌর মেয়র, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানসহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় প্রতিমন্ত্রী মাদকমুক্ত উপজেলা গড়তে, মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর থেকে কঠোরতম ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রশাসনকে নির্দেশ দেন।এর আগে সকাল ৯টায় শহরের প্রাণ কেন্দ্রে অবস্থিত গোল-ই-আফরোজ সরকারি অনার্স কলেজে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে পতাকা উত্তোলন ও শপথ বাক্য পাঠের মাধ্যমে কলেজের শিক্ষা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন তিনি। এসময় প্রায় ৪’শ শিক্ষার্থী মাদক দ্রব্য হতে দূরে থাকার শপথ বাক্য পাঠ করে।

  • প্রধান শিক্ষকের অপসারণের দাবীতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

    নিয়োগ বানিজ্য, বিদ্যালয়ের অর্থ আত্মসাৎ, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের প্রতি অসদাচারণ সহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে নাটোরের সিংড়া উপজেলার ক্ষিদ্রবড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলামের অপসারণের দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে স্থানীয় এলাকাবাসী। বুধবার সকালে উপজেলার ক্ষিদ্রবড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এ মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, বিদ্যালয়ে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নাজমুল হুদা ফটিক, স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা মারফত আলী, আতাউর রহমান, ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য সোহরাব আলী, সমাজ সেবক আলতাব আলী, বারিক হোসেন, শিক্ষক আবু বক্কর ছিদ্দিকসহ শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা।বক্তারা জানান, ক্ষিদ্রবড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম শাহীন নামে একজনকে চাকুরী দেবার কথা বলে তার কাছ থেকে ৭লাখ টাকা সহ বিদ্যালয়ের তহবিল থেকে লাখ লাখ নিয়ে আত্মসাৎ করে। বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সাথে অসদাচারণ করেন। এছাড়া প্রায় দিনই তিনি প্রতিষ্ঠানে অনুপস্থিত ছিলেন। এ কারনে বিদ্যালয়ে শিক্ষার পরিবেশ ব্যাহত হচ্ছে। অনতিবিলম্বে তাকে বিদ্যালয় থেকে অপসারণের জন্য প্রশাসনের কাছে জোর দাবী করেন এবং তাকে অপসারসণ না করা হলে বৃহত্তর আন্দোলনের ঘোষণা দেওয়া হবে বলে জানান।

তথ্যপ্রযুক্তি

post-10

শুরু হচ্ছে বেসিস সফটএক্সপো ২০১৭

বাংলাদেশের তৈরি সফটওয়্যার দেশি বিদেশিদের কাছে পরিচিত করতে বুধবার ঢাকায় শুরু হচ্ছে বেসিস সফটএক্সপো ২০১৭। শেরেবাংলা নগরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ১ থেকে ৪ ফেব্রুয়ারি এই প্রদর্শনী সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে বলে শনিবার বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেসের (বেসিস) এক সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। ঢাকার কারওয়ান বাজারে বেসিস কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলনে বেসিস সভাপতি মোস্তফা জব্বার জানান, দেশি-বিদেশি সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান, আন্তর্জাতিক আইটি সংগঠন, দেশি সফটওয়্যার কোম্পানিসহ শতাধিক প্রতিষ্ঠান তাদের তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য ও সেবা প্রদর্শন করবে একাদশতম সফটএক্সপোতে। “পাশাপাশি তথ্যপ্রযুক্তি খাতে ক্যারিয়ার গড়তে আগ্রহীদের চাকরির সুযোগ দিতে থাকছে ‘এন্টারপ্রেনারশিপ অ্যান্ড ক্যারিয়ার ইন আইটি’ শীর্ষক আয়োজন।” প্রোগ্রামিং, ডিজাইনিং, মার্কেটিং, বিজনেস ডেভেলপমেন্ট ও অ্যাকাউন্টিংসহ বিভিন্ন বিষয়ে আগ্রহীরা তাদের সিভি এ মেলায় আসা দেশি-বিদেশি প্রতিষ্ঠানের স্টলে জমা দেওয়ার সুযোগ পাবেন। বেসিসের পরিচালক সৈয়দ আলমাস কবীর বলেন, সফটওয়্যার ও তথ্যপ্রযুক্তি সেবায় রপ্তানি বাড়াতে এবারের মেলায় নেদারল্যান্ডস, ডেনমার্কসহ বিভিন্ন দেশের অন্তত ১০টি কোম্পানির সঙ্গে দেশীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর আন্তর্জাতিক ‘বিজনেস টু বিজনেস ম্যাচম্যাকিং সেশনের’ আয়োজন করা হয়েছে। তিনি জানান, তথ্যপ্রযুক্তির বিভিন্ন দিক নিয়ে ২০টি সেমিনার, ১০টি টেকনিক্যাল সেশন এবং প্রথম ও চতুর্থ শ্রেণির শিশুদের নিয়ে বিশেষ কোডিং প্রোগ্রাম থাকছে এবারের মেলায়। কোডিং প্রোগ্রাম শিশুদের প্রযুক্তি ব্যবহারে আগ্রহী করে তুলবে- এমন আশা প্রকাশ করে মোস্তফা জব্বার বলেন, “বাংলাদেশের ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে সবচেয়ে বেশি রূপান্তর ঘটেছে সফটওয়্যার খাতে। নতুন প্রজন্ম তীব্র গতিতে এই খাতে এগিয়ে আসছে।” এবারের প্রদর্শনীতে ছোট-বড় মিলিয়ে ৪২টি প্যাভেলিয়ন ও ৪৯টি স্টল থাকছে বলে আয়োজকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়। অন‌্যদের মধ‌্যে মাইক্রোসফট বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোনিয়া বশির কবীর, সিটি ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোহেল আর কে হুসেইন, বেসিসের সহ-সভাপতি এম রাশিদুল হাসান, পরিচালক উত্তম কুমার পাল সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন। আগ্রহী যে কেউ প্রদর্শনীস্থলে গিয়ে কিংবা অনলাইনের নিবন্ধন করে (http://softexpo.com.bd/visitor/registration) বিনামূল্যে সফটএক্সপোতে অংশ নিতে পারবেন।

  • ডুয়েটে মোবাইল গেইম কর্মশালা অনুষ্ঠিত

    মোবাইল গেইমিংয়ে বাংলাদেশের অবস্থান সুদৃড় করতে ও এই খাতে দেশের যুবসমাজকে দক্ষ জনশক্তি হিসাবে গড়ে তুলতে জাতীয় পর্যায়ে মোবাইল গেইম উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ। আয়োজনের অংশ হিসেবে শনিবার (২১ জানুয়ারি ২০১৭) ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (ডুয়েট), গাজীপুরে অনুষ্ঠিত হয়েছে মোবাইল গেম আইডিয়া জেনারেশন বিষয়ক কর্মশালা।

    কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার। বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় পর্যায়ে মোবাইল গেইম উন্নয়ন কর্মসূচির পরিচালক ও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সিস্টেম অ্যানালিস্ট মোঃ নবীর উদ্দীন, কর্মসূচির উপ-পরিচালক ও  ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ভাইস-চ্যান্সেলর ড. মোহাম্মদ আলাউদ্দিন ও অ্যাপনোমেট্রি লিমিটেডের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও ঢাকা চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের পরিচালক রিয়াদ হোসেন। সভাপতিত্ব করেন ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইইই অনুষদের ডিন ও সিএসই বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মোঃ নাসিম আখতার।

    তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ আয়োজিত এই কর্মশালা পরিচালনা করে অ্যাপনোমেট্রি লিমিটেড। কর্মশালায় মোবাইল আইডিয়া জেনারেশনের বিভিন্ন পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০০ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। জুরি বোর্ডের মাধ্যমে বাছাইকৃত ৩০ জন শিক্ষার্থী পরবর্তী প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে।

    উল্লেখ্য, প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে ১০ হাজার ডেভেলপার তৈরিসহ নানা ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার। এজন্য পূর্ণাঙ্গ অ্যাপস ডেভেলপার হিসেবে আট হাজার সাতশ পঞ্চাশ (৮,৭৫০) জনকে এবং গেইমিং অ্যানিমেটর হিসেবে দুই হাজার আটশ (২,৮০০) জনকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। এই লক্ষে দেশের বিভিন্ন  বিশ্ববিদ্যালয়/শিক্ষা প্রতিষ্টানে ২০টি কর্মশালার আয়োজন করা হচ্ছে।

  • তথ্যপ্রযুক্তি সেবার রফতানি বাড়াতে বেসিস সফটএক্সপোতে বিটুবি

    সফটওয়্যার ও তথ্যপ্রযুক্তি সেবার রফতানি বাড়াতে এবারের বেসিস সফটএক্সপোতে আন্তর্জাতিক বিজনেস টু বিজনেস ম্যাচমেকিংয়ের আয়োজন করা হচ্ছে। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি থেকে ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ তারিখে অনুষ্ঠিত হবে দেশের বেসরকারি খাতের সবচেয়ে বড় তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক প্রদর্শনী বেসিস সফটএক্সপো। প্রদর্শনীর প্রথমদিন বিকাল ৩টা থেকে এই বিটুবি ম্যাচমেকিং অনুষ্ঠিত হবে।

    নেদারল্যান্ড, ডেনমার্কসহ বিভিন্ন দেশের অন্তত ১০টি কোম্পানি বাংলাদেশের অর্ধশতাধিক সফটওয়্যার ও তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর কোম্পানির সাথে আলাদা বৈঠকে মিলিত হবেন। এর মাধ্যমে তারা একে অন্যের সঙ্গে আগামীতে ব্যবসায় উন্নয়নে পদক্ষেপ নিতে পারবেন। বেসিসের আগের বিটুবির অভিজ্ঞতা থেকে ধারণা করা হচ্ছে এবারের বিটুবির মাধ্যমে বাংলাদেশি কোম্পানিগুলো বেশ কিছু আন্তর্জাতিক কোম্পানির সাথে ব্যবসায়ের সুযোগ পাবে।

    ‘ফিউচার ইন মোশন’ স্লোগান নিয়ে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এগারতম এ মেলার আয়োজন করছে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের শীর্ষ বাণিজ্যিক সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস)।

    আগ্রহী যে কেউ অনুষ্ঠানস্থলে কিংবা অনলাইনের নিবন্ধন করে এবারের প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণ করতে পারবেন। বেসিস সফটএক্সপোর ওয়েবসাইট (http://softexpo.com.bd/visitor/registration) ভিজিট করে আগ্রহীরাদের নিবন্ধন করতে হবে।

    উল্লেখ্য, বিগত যেকোনো সফটএক্সপোর তুলনায় বর্ধিত পরিসরে ও নানা আয়োজনে বেসিস সফটএক্সপো ২০১৭ অনুষ্ঠিত হবে। বেসিসের সদস্য প্রতিষ্ঠানসহ দেড় শতাধিক প্রতিষ্ঠান এবারের প্রদর্শনীতে অংশ নিচ্ছে। এছাড়া অতিথি হিসেবে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীবর্গ, আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিবৃন্দ, দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের প্রতিনিধিবৃন্দসহ অন্তত ৫ লাখ দর্শনার্থী উপস্থিত হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

    এবারের আয়োজনে অন্তত ২০টি সেমিনার, ১০টি টেকনিক্যাল সেশন, টেক উইমেন কনফারেন্স, ডেভেলপার কনফারেন্স, শিশুদের জন্য কোডিংসহ অনেকগুলো বড় আয়োজন থাকছে।

  • সদস্যদের জন্য বিশেষ সেবা কার্ড চালু করবে বেসিস

    বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) তার সদস্যদের জন্য বিশেষ সেবা কার্ড চালু করতে যাচ্ছে। এই কার্ডের মাধ্যমে বিভিন্ন হোটেল, রেস্টুরেন্ট, হাসপাতাল, বিমানবন্দরসহ প্রয়োজনীয় বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ ছাড় পাবেন সদস্যরা। এই কার্ড চালুর অংশ হিসেবে ইউনাইটেড হাসপাতাল ও গ্লোবাল এয়ারপোর্ট অ্যাসিস্টিং সার্ভিসেসের সাথে আলাদা চুক্তিস্বাক্ষর করেছে বেসিস।

    রবিবার (২২ জানুয়ারি ২০১৭) বেসিস সভাকক্ষে উক্ত চুক্তিস্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হয়। বেসিস সভাপতি জনাব মোস্তাফা জব্বারের উপস্থিতিতে বেসিসের পক্ষ থেকে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন প্রতিষ্ঠানটির সদস্য কল্যাণ সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান জনাব দেলোয়ার হোসেন ফারুক। ইউনাইটেড হাসপাতাল লিমিটেডের কমিউনিকেশন ও বিজনেস ডেভেলপমেন্ট বিভাগের প্রধান ড. শাগুফা আনোয়ার এবং গ্লোবাল এয়ারপোর্ট অ্যাসিস্টিং সার্ভিসেসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব খন্দকার ফারহান আতিফ নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

    চুক্তিস্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বেসিসের সচিব জনাব হাশিম আহম্মদ, সদস্য কল্যাণ সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির কো-চেয়ারম্যান জনাব মোহাম্মদ সামিউল ইসলাম, ইউনাইটেড হাসপাতাল লিমিটেডের বিপণন বিভাগের ডেপুটি ইনচার্জ জনাব সৈয়দ আশরাফ-উল মাসুম, কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

    বেসিস সভাপতি জনাব মোস্তাফা জব্বার বলেন, বেসিস সদস্যরা যাতে তাদের ব্যবসার পাশাপাশি ব্যক্তিগত, পারিবারিক প্রয়োজনে, জরুরী মুহুর্তে ও ভ্রমণকালীন বিশেষ সুবিধা ও অগ্রাধিকার পেতে পারে তার জন্য শিগগিরই বিশেষ সেবা কার্ড চালু করা হবে। এ উপলক্ষ্যে বিভিন্ন কোম্পানির সাথে চুক্তিস্বাক্ষর করা হচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় এই চুক্তিস্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হলো। আগামীতে আরও সেবা যুক্ত করা হবে।

বিনোদন

Back to Top

E-mail : info@dpcnews24.com / dpcnews24@gmail.com

EDITOR & CEO : KAZI FARID AHMED (Genarel Secratry - DHAKA PRESS CLUB)

Search

Back to Top