• সিঙ্গাপুরে হতে পারে ট্রাম্প-কিমের যুগান্তকারী বৈঠক

    মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন আগামী মাসে সিঙ্গাপুরে বৈঠকে বসতে পারেন। এ দুই নেতার মধ্যে নজিরবিহীন আলোচনার প্রত্যাশা তৈরী হওয়ার প্রেক্ষাপটে এমন ধারণা করা হচ্ছে। খবর এএফপি’র। বিস্তারিত উল্লেখ না করে সপ্তাহান্তে ট্রাম্প বলেন, উভয় পক্ষ যুগান্তকারী এ বৈঠকের তারিখ ও স্থান নির্ধারণ করেছে। আর এটি হবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ও উত্তর কোরিয়ার নেতার মধ্যে প্রথম বৈঠক। ট্রাম্প সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা শিগগিরই এ বৈঠকের তারিখ ও স্থানের নাম ঘোষণা করবো।’ কূটনৈতিক সূত্রের বরাত দিয়ে সোমবার দক্ষিণ কোরিয়ার চোসান ইলবো দৈনিকের খবরে বলা হয়, এ যুগান্তকারী বৈঠক ‘মধ্য-জুনে’ অনুষ্ঠিত হবে। ওই সংবাদপত্রের খবরে আরো বলা হয়, বৈঠকটি সিঙ্গাপুরে হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশী। এ মাসের শেষের দিকে হোয়াইট হাউসে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইনের সঙ্গে ট্রাম্পের সাক্ষাতের সময়ে এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। তবে এ ব্যাপারে বিস্তারিত আর কিছু বলা হয়নি। দক্ষিণ কোরিয়ার সরকারি বার্তা সংস্থা ইয়োনহাপ সপ্তাহান্তে একই ধরনের এটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ওই প্রতিবেদনেও এ সম্মেলনের সম্ভাব্য স্থানের ক্ষেত্রে সিঙ্গাপুরের নাম উল্লেখ করা হয়।

  • নিষেধাজ্ঞার কারণে প্রতিরক্ষা ব্যয় হ্রাসে বাধ্য হলো রাশিয়া : জরিপ

    রাশিয়ার সামরিক ব্যয় ১৯৯৮ সালের পর প্রথমবারের মতো ২০১৭ সালে অনেক হ্রাস পেয়েছে। মস্কোর বিরুদ্ধে পশ্চিমা দেশগুলোর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপের কারণে সরকারি কোষাগারে ঘাটতি দেখা দেয়ায় এ ব্যয় হ্রাস করা হয়। এক জরিপ থেকে বুধবার এ তথ্য জানা গেছে। খবর এএফপি’র। স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিচ রিসার্চ ইনস্টিটিউট (এসআইপিআরআই) জানায়, মস্কো ও পশ্চিমা দেশগুলোর মধ্যে উত্তেজনা বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে গত বছর রাশিয়ার সামরিক ব্যয় ছিল ৬৬.৩ বিলিয়ন ডলার। পূর্ববর্তী ২০১৬ সালের তুলনায় এ ব্যয় ২০ শতাংশ কম। খবরে বলা হয়, ব্যাপক আর্থিক সংকটের মুখে মস্কো এর আগে ১৯৯৮ সালে তাদের দেশের সামরিক ব্যয় হ্রাস করে। ইউক্রেনের ক্রিমিয়া উপদ্বীপের অন্তর্ভূক্তি প্রশ্নে রাশিয়ার বিরুদ্ধে পশ্চিমা দেশগুলোর অবরোধ আরোপের কথা উল্লেখ করে এসআইপিআরআই’র সিনিয়র গবেষক সিমন ওয়েজমান বলেন, ‘রাশিয়া সামরিক বাহিনীর আধুনিকায়নের বিষয়ে অগ্রাধিকার দেওয়া বজায় রাখলেও আর্থিক সমস্যার কারণে সামরিক বাজেট কাটছাট করছে। ২০১৪ সাল থেকে দেশটি এই সংকট মোকাবেলা করছে।

  • উ. কোরিয়ার পরমাণু পরীক্ষা কেন্দ্র বন্ধ যাচাইয়ে জাতিসংঘের সহযোগিতা চেয়েছেন মুন

    উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক পরীক্ষা কেন্দ্র বন্ধের পরিকল্পনা যাচাই করতে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইন জাতিসংঘের কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন। মঙ্গলবার জাতিসংঘ মুখপাত্র একথা জানিয়েছেন। খবর এএফপি’র। মুন সোমবার জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতেরেসকে ফোন করে এ অনুরোধ জানান। উত্তর কোরিয়া আগামী মে মাসে তাদের পারমাণবিক পরীক্ষা কেন্দ্র বন্ধ করে দেয়ার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছেন এমন কথা দেশটির নেতা কিম জং উন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টকে বলার মাত্র কয়েকদিন পর তিনি এ আহবান জানালেন। জাতিসংঘ মুখপাত্র স্টিফান দুজারিক বলেন, ডিপিআরকে’র চেয়ারমেন কিম জং উনের ঘোষণা অনুযায়ী দেশটির পারমাণবিক পরীক্ষা কেন্দ্র দ্রুত বন্ধের পরিকল্পনা যাচাই করতে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট জাতিসংঘের সহযোগিতা চেয়েছেন। উত্তর কোরিয়ার সরকারি নাম হচ্ছে ডেমোক্রেটিক পিপলস রিপাবলিক অব কোরিয়া (ডিপিআরকে)। তিনি আরো বলেন, মুন দুই কোরিয়ার মধ্যে নতুন করে একটি ডিমিলিটাইজড জোন প্রতিষ্ঠায় জাতিসংঘের সহায়তা চেয়েছেন। এদিকে গুতেরেস বলেছেন, জাতিসংঘ সম্ভাব্য সহযোগিতার ধরন নিয়ে আলোচনা করতে প্রস্তুত রয়েছে। তবে এ ব্যাপারে বিস্তারিত আর কিছু বলা হয়নি। এ ধরনের যাচাই মিশন কার্যক্রম চালাতে ভিয়েনা ভিত্তিক আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি সংস্থার (আইএইএ) বিশেষজ্ঞরা রয়েছেন। উল্লেখ্য, গত বছর উত্তর কোরিয়া তাদের ষষ্ট পারমাণবিক পরীক্ষা চালানোয় এবং একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র উক্ষেপণ করায় জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ পিয়ংইয়ংয়ের বিরুদ্ধে কঠোর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।

  • কাবুলে সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের

    জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ সোমবার আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে রোববারের হামলাকে ‘নৃশংস ও কাপুরুষোচিত সন্ত্রাসী হামলা’ উল্লেখ করে এর তীব্র নিন্দা জানিয়েছে। খবর সিনহুয়া’র। ওই হামলায় ৬০ জনের বেশি লোক প্রাণ হারিয়েছে। নিরাপত্তা পরিষদ এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যরা এই হামলায় নিহতদের পরিবারের সদস্য ও আফগান সরকারের প্রতি গভীর সহানুভূতি প্রকাশ করছে। তারা এই হামলায় আহতদের দ্রুত ও সম্পূর্ণ সুস্থতা কামনা করছে।’ বিবৃতিতে আরো বলা হয়, যে কোন ধরনের সন্ত্রাস আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তার জন্য বড় ধরনের হুমকি। রোববারের ওই আত্মঘাতী বোমা হামলায় ২৭ নারী ও ৮ শিশুসহ ৬০ জনের বেশি লোক প্রাণ হারায়। একটি ভোট নিবন্ধন কেন্দ্রে এ হামলা চালানো হয়।  

  • পরমাণু কিংবা ক্ষেপণাস্ত্র কোন পরীক্ষাই না চালানোর অঙ্গীকার উ.কোরীয় নেতার

    উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উন শনিবার এক ঘোষণায় বলেছেন, তিনি পারমাণবিক অস্ত্রের পরীক্ষা এবং আন্ত:মহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ বন্ধ রাখবেন। এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উনের মধ্যে বহুল প্রত্যাশিত সম্মেলনের প্রাক্কালে পিয়ংইয়ংয়ের এ ঘোষণাকে ওয়াশিংটন স্বাগত জানিয়েছে। খবর এএফপি’র। কোরীয় উপদ্বীপের দ্রুত কূটনৈতিক অগ্রগতির ক্ষেত্রে ওয়াশিংটনের দীর্ঘ প্রত্যাশিত পিয়ংইয়ংয়ের এ ঘোষণাকে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ হিসেবে দেখা হচ্ছে। কোরীয় উপদ্বীপকে বিভক্ত করা ডিমিলিটারাইজড জোনে শীর্ষ সম্মেলনের জন্য দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার নেতার সাক্ষাতের এক সপ্তাহেরও কম সময় আগে এমন ঘোষণা দেয়া হলো। কিম বলেন, উত্তর কোরিয়া তাদের পরমাণু অস্ত্রের ক্ষেত্রে যে অগ্রগতি অর্জন করেছে তা তাদের জন্যে ‘বড় বিজয়’। তিনি আরো বলেন, ‘এখন উত্তর কোরিয়ার জন্য আর কোন পারমাণবিক পরীক্ষা এবং মাঝারি পাল্লার ও আন্ত:মহাদেশীয় ব্যালাস্টিক রকেট উৎক্ষেপণের প্রয়োজন নেই।’ উত্তর কোরিয়ার সরকারি বার্তা সংস্থা কেসিএনএ জানায়, দেশটির নেতা ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটিকে বলেছেন যে উত্তর কোরিয়ার এ ধরণের পারমাণবিক পরীক্ষা কেন্দ্রের আর প্রয়োজন নেই। এখন থেকে উত্তর কোরিয়া পারমাণবিক অস্ত্রের পরীক্ষা চালানো থেকে বিরত থাকবে দলটি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং তারা পরীক্ষা বন্ধের নিশ্চয়তা দিতে পুংগি-রিতে থাকা পারমাণবিক পরীক্ষা কেন্দ্র ধ্বংস করবে। উল্লেখ্য, গত নভেম্বর থেকে উত্তর কোরিয়া পারমাণবিক অস্ত্রের আর কোন পরীক্ষা চালায়নি। এদিকে উত্তর কোরিয়ার নেতা এমন ঘোষণা দেয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যে ট্রাম্প এক টুইটার বার্তায় বলেন, ‘উত্তর কোরিয়া ও সারাবিশ্বের জন্য এটি অনেক ভাল খবর। এটি একটি বড় অগ্রগতি। আমি আমাদের বৈঠকের অপেক্ষায় রয়েছি। এদিকে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের পারমাণবিক অস্ত্র ও ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা না চালানোর সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া। শনিবার সিউলে প্রেসিডেন্টের দপ্তরের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘কোরীয় উপদ্বীপের নিরস্ত্রীকরণের জন্য উত্তর কোরিয়ার সিদ্ধান্ত ইতিবাচক। সারাবিশ্ব এমনটাই দেখতে চায়।’ বিবৃতিতে আরো বলা হয়, ‘আসন্ন আন্তঃকোরীয় ও উত্তর কোরিয়া-যুক্তরাষ্ট্র সম্মেলনের সফলতার জন্য এ সিদ্ধান্ত একটি ইতিবাচক পরিবেশ সৃষ্টি করবে।’

  • ব্রাজিলে কারাগার ভেঙ্গে পালানোর চেষ্টা : নিহত অন্তত ২০

    ব্রাজিলের উত্তরাঞ্চলের একটি কারাগার ভেঙ্গে পালানোর চেষ্টা করায় অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার কারাগারের বাইরে থেকে একটি সশস্ত্র গ্রুপ দেয়াল ভেঙ্গে ফেলার চেষ্টা করলে এ ঘটনা ঘটে। দেশটির কর্মকর্তারা একথা জানান। খবর এএফপি’র। পাড়া রাজ্যের নিরাপত্তা সূত্র জানায়, ব্রাজিলের পাড়া রাজ্যের বেলেম নগরীর অ্যামাজন রেনফরেস্টের কাছে সান্তা ইসাবেল পোনিটেনশিয়ারি কমপ্লেক্স ভেঙ্গে বন্দিদের মুক্ত করার চেষ্টা চালানো হয়। এ সময় জেলের ভেতরের বন্দি ও বাইরের সশস্ত্র দুষ্কৃতকারীরা সামরিক কায়দায় হামলা চালায়। সেখানে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা হামলাকারীদের লক্ষ্যকরে পাল্টা গুলি চালালে উভয়পক্ষের মধ্যে ব্যাপক বন্দুকযুদ্ধ হয়। এ ঘটনায় ১৯ বন্দি ও বহিরাগত হামলাকারী নিহত হয়। এছাড়া ওই সংঘর্ষে একজন নিরাপত্তা রক্ষী নিহত ও অপর ছয় জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে একজনের অবস্থা গুরুতর। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে পাঁচটি বন্দুক উদ্ধার করেছে।

  • কানাডায় বাস দুর্ঘটনায় ১৪ জন নিহত

    কানাডার সাসকাটিওয়ান এলাকার মহাসড়কে তরুণ হকি খেলোয়াড় বহনকারী বাসের সাথে দ্রুতগামী ট্রাকের মখোমুখি সংঘর্ষে ১৪ জন প্রাণ হারিয়েছে। পুলিশকে উদ্ধৃত করে কানাডার মিডিয়া এ খবর দিয়েছে বলে বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়। দুর্ঘটনায় আরো ১৪ জন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। তাদের মধ্যে তিন জনের অবস্থা আশংকা জনক। কানাডিয়ান মিডিয়া সাসকাটোন স্টার ফনিকস জানায়, দেশটির হামব্রল্ড ব্রনকস হকি দল বহনকারী বাসটি দুর্ঘটনায় পড়ে। সাসকাটিওয়ান তরুন হকি দলটি জুনিয়র হকি লীগে নাইপাউন হকস দলের বিরুদ্ধে খেলায় অংশ নেয়ার জন্যে যাচ্ছিল। এ সময় দুর্ঘটনাটি ঘটে।

  • সিরিয়ার দৌমায় নতুন করে বিমান হামলা

    সিরিয়ার বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত শহর দৌমায় শনিবার নতুন করে বিমান হামলা শুরু হয়েছে। উদ্ধারকর্মী ও একটি পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা একথা জানিয়েছে। দামেস্কের বাইরের এই শহরে বিদ্রোহীদের অবস্থান লক্ষ্য করে রাতভর ব্যাপক গোলা বর্ষণের পর নতুন করে এই বিমান হামলা শুরু হল। খবর এএফপি’র। শনিবার সকালে দৌমা থেকে উদ্ধার কর্মী ফিরাস আল-দৌমি বলেন, ‘এখনো বোমা বর্ষণ চলছে। তিনটি জঙ্গি বিমান ও দুটি হেলিকপ্টারের সাহায্যে এ হামলা চালানো হচ্ছে।’ সিরিয়ার ইস্টার্ন গৌতার বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত শেষ শহর দৌমা। এক সময় রাজধানীর কাছের এই শহরটি বিরোধী দলের প্রধান ঘাঁটি ছিল। রাশিয়ার সহায়তায় সিরিয়ার সৈন্যরা গৌতার ৯৫ শতাংশ এলাকা নিজেদের দখলে নিয়েছে। যদিও উভয়পক্ষের মধ্যে সমঝোতার পাশাপাশি স্থল ও আকাশ পথে হামলা চলছে। ব্রিটেন ভিত্তিক পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানিয়েছে, শুক্রবারের বিমান হামলা ও গোলা বর্ষণে আট শিশুসহ ৪০ বেসামরিক লোক প্রাণ হারিয়েছে। শনিবার দৌমাজুড়েই বিমান হামলা চালানো হচ্ছে। সরকারি বাহিনী আশপাশের কৃষিক্ষেতে গোলা বর্ষণ করছে।

  • নিউইয়র্কে পুলিশের গুলিতে নিরস্ত্র ব্যক্তি নিহত

    নিউইয়র্ক পুলিশ বুধবার ব্রুকলিনে আফ্রিকান বংশোদ্ভূত এক আমেরিকানকে গুলি করে হত্যা করেছে। ভুল করে একটি পাইপ বন্দুকের মতো তাক করায় তাকে গুলি করা হয়। খবর এএফপি’র।যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশের গুলিতে নিহত হওয়ার ক্ষেত্রে এটি সর্বশেষ ঘটনা। আইনশৃংঙ্খলা রক্ষাবাহিনীর হাতে এ হত্যার ঘটনার দেশব্যাপী কঠোর সমালোচনা হচ্ছে।ব্রুকলিনের কেন্দ্রস্থলের ক্রাউন হাইটসে বিকেল ৫ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।নিউইয়র্ক পুলিশ বিভাগের প্রধান টারেন্স মোনাহান জানান, জরুরি নম্বর ৯১১-এ তিন দফা ফোন করে বলা হয় যে এক ব্যক্তি রাস্তার লোকজনকে লক্ষ্যকরে বন্দুকের মতো একটি জিনিস তাক করে রয়েছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে কর্মকর্তারা পদক্ষেপ নেন।মোনাহান আরো জানান, সেখানে পুলিশ এগিয়ে আসলে ওই ব্যক্তি গুলি করার ভঙ্গিতে কর্মকর্তাদের দিকে এগিয়ে আসে। ফলে পুলিশ তাকে লক্ষ্যকরে ১০ রাউন্ড গুলি করে। পরে হাসপাতালে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।মোনাহান জানান, রাস্তার লোকজনকে লক্ষ্য করে ওই ব্যক্তির তাক করা বস্তুটি আসলে বন্দুক ছিল না। এটি বন্দুকের মতো লম্বা একটি পাইপ ছিল।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেয়া ভিডিও ফুটেজে দেখা যাচ্ছে সেখানে গুলির ঘটনার পরপরই ঘটনাস্থলে অনেক লোক জড়ো হয়। এদের মধ্যে অনেককে পুলিশের এমন কর্মকান্ডের কঠোর নিন্দা জানাতে দেখা যায়।

  • আফগান বিমান বাহিনীর হামলায় ২০ জঙ্গি হতাহত

    আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলীয় বালখ প্রদেশের জঙ্গি আস্তানায় সরকারি বাহিনীর বিমান হামলায় অন্তত ১৩ তালেবান জঙ্গি নিহত ও অপর সাত জন আহত হয়েছে।বৃহস্পতিবার সেনাবাহিনীর এক সূত্র এ কথা জানিয়েছে। খবর সিনহুয়া’র।সেনাবাহিনীর কোর্পস ২০৯ শাহিন-এর মুখপাত্র হানিফ রেজাই বলেন, বুধবার বিকেলে চিমতাল জেলার বাবুরুজাই ও আসিয়াব ফিরকা এলাকায় এমডি-৫৩০ হেলিকপ্টারের সাহায্যে এ হামলা চালানো হয়।এতে বেসামরিক লোক হতাহত হয়নি। তবে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গোলাবারুদ ধ্বংস হয়েছে।

  • সালমানের ৫ বছরের কারাদন্ড

    ভারতে বিপন্ন প্রজাতির হরিণ হত্যার দায়ে আদালত বৃহস্পতিবার বলিউড সুপারস্টার সালমান খানকে পাঁচ বছরের কারাদন্ড দিয়েছে। সরকারি পক্ষের কৌঁসুলি মহীপাল বিষ্ণু আদালতের সামনে সাংবাদিকদের বলেন, আদালত সালমান খানকে পাঁচ বছরের কারাদন্ড এবং ১০ হাজার রুপি জরিমানা করেছে। তিনি আরো জানান, সালমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হচ্ছে। ৫২ বছর বয়সী এ অভিনেতাকে যোধপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হবে। এর আগে ১৯৯৮ সালে বিরল প্রজাতির কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার জন্য রাজস্থান রাজ্যের একটি আদালত ভারতীয় চলচ্চিত্র শিল্পের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য তারকা সালমানকে দোষী সাব্যস্ত করে। বন্যা প্রাণী সংরক্ষণ আইনের ৯ (৫১) ধারায় সালমানকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়।

E-mail : info@dpcnews24.com / dpcnews24@gmail.com

EDITOR & CEO : KAZI FARID AHMED (Genarel Secratry - DHAKA PRESS CLUB)

Search

Back to Top