• ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ১২ জানুয়ারি থেকে

    উৎসব পরিচালক ও রেইনবো চলচ্চিত্র সংসদের সভাপতি আহমেদ মুজতবা জামাল জানিয়েছেন, পঞ্চদশ ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে বাংলাদেশসহ প্রায় ৬৭টি দেশের ১৮৬টিরও বেশি ছবির প্রদর্শনী হবে। রাজধানীর জাতীয় জাদুঘর মিলনায়তন, কেন্দ্রীয় গণগ্রন্থাগারের শওকত ওসমান মিলনায়তন, আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ, স্টার সিনেপ্লেক্স এবং আমেরিকান সেন্টার মিলনায়তনে এগুলো দেখানো হবে। এশিয়ান কম্পিটিশন, রেট্রোস্পেকটিভ, সিনেমা অব দ্য ওয়ার্ল্ড, চিলড্রেনস ফিল্মস্, স্পিরিচুয়াল ফিল্মস, ইন্ডিপেন্ডেন্ট ফিল্মস, নরডিক ফিল্ম সেশন এবং উইমেন্স ফিল্মমেকারস্ সেকশন-এ চলচ্চিত্রগুলো প্রদর্শিত হবে। এ ছাড়া বিশ্বের ৬৭টি দেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন চলচ্চিত্রকার-সমালোচক, সাংবাদিক, বিভিন্ন দেশের দূতাবাসের কর্মকর্তা, রেইনবো চলচ্চিত্র সংসদ ও অন্যান্য চলচ্চিত্র সংসদের সদস্যসহ দেশের বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব উৎসবে অংশ নিয়ে দর্শকদের সঙ্গে তাদের অভিজ্ঞতা বিনিময় করবেন। উৎসবের অংশ হিসেবে চলচ্চিত্রে নারীর ভূমিকা বিষয়ক ‘তৃতীয় ঢাকা আন্তর্জাতিক উইমেন ফিল্ম মেকারস্ কনফারেন্স’ অনুষ্ঠিত হবে। আলিয়ঁস ফ্রসেজ মিলনায়তনে এই সম্মেলন থাকবে আগামী ১৩ ও ১৪ জানুয়ারি। এতে বিভিন্ন দেশের নারী চলচ্চিত্র নির্মাতাদের সঙ্গে মতবিনিময়ের মাধ্যমে বাংলাদেশের নারী নির্মাতারা অভিজ্ঞতা অর্জনের সুযোগ পাবেন বলে আশা করা হচ্ছে। উৎসবের অগ্রগতি ও পরিকল্পনা জানাতে আগামী ২৬ ডিসেম্বর দুপুর ১২টায় ঢাকা ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। এখানে পঞ্চদশ ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের সার্বিক দিক তুলে ধরা হবে বলে জানায় রেইনবো চলচ্চিত্র সংসদ।

  • বিশ্ব সুন্দরী নির্বাচিত হলেন স্টেফানি

    বিশ্ব সুন্দরী নির্বাচিত হলেন ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জের অন্তর্ভুক্ত দেশ পুয়ের্তো রিকোর স্টেফানি দেল ভালে। রোববার সন্ধ্যায় আমেরিকার এম জি এম ন্যাশনাল হারবার রিসর্টে তার মাথায় মুকুট পরিয়ে দেন গত বছরের বিশ্বসুন্দরী মিরিয়া লালাগুনা। এ বছর প্রতিযোগীতায় প্রথম পাঁচটি স্থানে জায়গা পেয়েছিল কেনিয়া, ফিলিপিন্স, পুয়ের্তো রিকো, ডোমিনিকান রিপাবলিক এবং ইন্দোনেশিয়া। ফাইনালে মিস ডোমিনিকান রিপাবলিক ইয়েরিতজা মিগুয়েলিনা রেইজ রামিরেজ এবং মিস ইন্দোনেশিয়া নাতাশা ম্যানুয়েলাকে হারিয়ে বিশ্ব সুন্দরীর মুকুট স্টেফানির মাথায় ওঠে। ১৯ বছর বয়সী স্টেফানি নিউইয়র্কের পেস ইউনিভার্সিটির কলা বিভাগের ছাত্রী। ইংরাজি, ফরাসী এবং স্পেনীয় ভাষায় রীতিমতো দক্ষ। পড়াশোনা শেষ করে হলিউডে নাম লেখানোর ইচ্ছে রয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। এ বছরের বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতা ঘিরে অনেক বিতর্ক হয়েছে। কানাডার হয়ে প্রতিযোগিতায় নাম লিখিয়েছিলেন চীনা বংশোদ্ভূত অ্যানাস্তেসিয়া লিন। চীনে জন্ম হলেও, মাত্র ১৩ বছর বয়স থেকে কানাডায় বাস করছেন তিনি। গত বছর মিস কানাডা হয়েছিলেন। বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতায় নাম লেখানোর পর থেকেই চীনে মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে গলা চড়িয়েছিলেন তিনি। আয়োজকদের পক্ষে বারবার সাবধান করা হয় তাকে। চীনের বিরুদ্ধে মুখ খুলে এর আগেও সমস্যায় পড়েছিলেন তিনি। গত বছর চীনেই বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতা আয়োজিত হয়েছিল। কিন্তু তাকে ভিসা দিতে অস্বীকার করে বেজিং।

  • হৃতিকের বিপরীতে সাইফ কন্যার অভিষেক

    ডিপিসি বিনোদন ডেস্ক: সাইফ আলী খান ও অমৃতা সিংয়ের মেয়ে সারা আলী খান। অনেকদিন ধরেই বলিউডে পা রাখবেন বলে খবরে তিনি। এবার শোনা যাচ্ছে, হৃতিক রোশানের বিপরীতে বলিউডে পা রাখতে যাচ্ছেন সারা। হৃতিককে নিয়ে অগ্নিপথ সিনেমা বানিয়েছেন করণ মালহোত্রা। এছাড়া এ অভিনেতার যোধা আকবর সিনেমায় সহকারী পরিচালক ছিলেন তিনি। এবার তাকে নিয়েই নতুন একটি কমেডি-ড্রামা তৈরি করবেন করণ। আর এতে তার বিপরীতে থাকবেন ২৪ বছর বয়সি সারা। সিনেমা সংশ্লিষ্ট একটি সূত্রের বরাতে এমনটাই জানিয়েছেন ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম। এর আগে শোনা যায়, টাইগার শ্রোফের সঙ্গে স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার-টু সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে পা রাখবেন সারা। এরপর গুঞ্জন ওঠে, শহিদ কাপুরের ভাই ইশান কাট্টারের সঙ্গে দ্য ফল্ট ইন আওয়ার স্টার সিনেমার রিমেকে দেখা যাবে তাকে। এছাড়া জিনিয়াস শিরোনামের একটি সিনেমায় সারাকে দেখা যাবে বলে খবর প্রকাশিত হয়। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সবই গুঞ্জন পর্যন্ত সীমাবদ্ধ রয়েছে। সর্বশেষ শোনা যায়, রণবীর সিংয়ের বিপরীতে গলি বয় শিরোনামের একটি সিনেমায় দেখা যাবে তাকে। এরও কোনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা পাওয়া যায়নি। সারার অভিষেক প্রসঙ্গে সূত্রটি ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘বড় ধরনের প্রজেক্টের মাধ্যমে বলিউডে পা রাখবেন তিনি। তার প্রথম সিনেমা হবে করণ মালহোত্রার একটি কমেডি সিনেমা।’ করণ মালহোত্রা পরিচালিত সর্বশেষ সিনেমা ব্রাদার্স। এতে অভিনয় করেছেন অক্ষয় কুমার, সিদ্ধার্থ মালহোত্রা, জ্যাকি শ্রফ, জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ প্রমুখ। এছাড়া গত তিন বছর ধরে করণ জোহরের প্রযোজনায় শুদ্ধি শিরেনামের একটি সিনেমা পরিচালনার জন্যও খবরে এসেছেন তিনি। যদিও নানা জটিলতায় সিনেমাটি এখন পর্যন্ত তৈরি হয়নি।

  • সালমানকে ছেড়ে হিমেশের প্রেমে

    ডিপিসি বিনোদন ডেস্ক: সময় এবং নদীর স্রোত কারো জন্য অপেক্ষা করে না। ঠিক যেমন বলিউড অভিনেতা সালমান খানের জীব! তিনি যেমন তার জীবনের কোনো মেয়ের জন্যই আজ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে পারেননি! অবশ্য এর ফলে তার জীবনে সম্পর্ক শুধুই গড়েছে আর ভেঙেছে। কিন্তু এতে আজ পর্যন্ত কোনো ফল আসেনি। শেষ একটা খবর এসেছিল, লুলিয়া ভান্টুরের সঙ্গে তার সম্পর্কটা বিয়ে পর্যন্ত এগোচ্ছে! কিন্তু এখন সেই আশাও গুড়েবালি! কারণ লুলিয়া সাফ বলে দিয়েছেন, ‘তিনি সালমান খানের ব্যাপারে আর কিছু ভাবছেনই না! সম্পর্ক নিয়ে সালমানের না কি তার ভালো লাগছে না!’ তার পরেই লুলিয়া ভান্টুর সম্পর্ক বাঁধলেন হিমেশ রেশমিয়ার সঙ্গে। তবে যে খবর ছিল লুলিয়া ভারত ছেড়ে চলে গিয়েছেন, সেটাকে কি মিথ্যা বলে ধরে নিতে হবে? একদমই তাই! লুলিয়া কোথাও যাননি! তিনি মুম্বাইতেই রয়েছেন এবং এখন হিমেশ রেশমিয়ার সঙ্গে চলছে তার সুর-সফর। জানা গেছে, হিমেশের নতুন মিউজিক অ্যালবামের জন্য গান গেয়েছেন লুলিয়া। অনেক দিন পরে আবার মিউজিক অ্যালবাম নিয়ে বেশ উঠে-পড়ে লেগেছেন হিমেশ। সেই অ্যালবামের তিনি নাম রেখেছেন ‘আপ কি মৌসিকি’। সেখানেই হিমেশ রেশমিয়ার সুরে গান গাইলেন লুলিয়া ভান্তুর। সালমানের ‘বিইং হিউম্যান’-এর পেজে লুলিয়ার গলায় ‘জগ ঘুমেয়া’ গানটা শুনেই না কি গায়িকা লুলিয়াকে দারুণ ভাল লেগে গিয়েছিল হিমেশের। ফলে তিনি আর সিদ্ধান্ত নিতে দেরি করেননি।

  • ‘শঙ্খচিল’-এর পর কুসুম

    ডিপিসি বিনোদন ডেস্ক: একটি ভালো মানের ছবি একজন অভিনয় শিল্পীকে ভিন্নমাত্রায় পৌঁছে দেয়। তেমনই একটি ছবিতে কাজ করে নিজের অনেক সিদ্ধান্তে পরিবর্তন এনেছেন কুসুম শিকদার। নতুন করে অনেক কিছু শেখারও চেষ্টা করেছেন এ অভিনেত্রী। গুছিয়ে নিজের মতো করে পথ চলছেন। তার অভিনীত বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ইমপ্রেস টেলিফিল্মের ছবি ‘শঙ্খচিল’ ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল অব ইন্ডিয়ার ‘প্যানারমা’ বিভাগে প্রদর্শনের জন্য মনোনয়ন পেয়েছে। একই বিভাগে আরো প্রদর্শিত হবে সালমান খানের ‘সুলতান’, রণবীর সিংয়ের ‘বাজিরাও মাস্তানি’ ও অক্ষয় কুমারের ‘এয়ার লিফ্‌ট’ ছবিগুলো। ভারতীয় সরকারের আয়োজনে ভারতের পর্যটন নগরী গোয়ার পানাজীতে আগামী ২০ থেকে ২৮শে নভেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এ উৎসব। এতে যোগ দিতে কয়েকদিন পরই ভারতে যাচ্ছেন কুসুম। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমি খুব বেশি কাজ করার পক্ষে নই। বুঝেশুনে কয়েকটি ভালো কাজ করতে পারলেই খুশি। আমার এই স্বল্প ক্যারিয়ারে তেমনই একটি কাজ ‘শঙ্খচিল’। এ ছবিতে কাজ করার পর দুদেশেই ছবিটি নিয়ে বেশ প্রশংসা পেয়েছি। কয়েকদিন পর ৪৭তম ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল অব ইন্ডিয়ার আসরে যোগ দিব আমি। আমার ছবি এমন একটি বড় উৎসবে অংশ নিচ্ছে, এটা সত্যিই অনেক গর্বের। এজন্য ইমপ্রেস টেলিফিল্মের ফরিদুর রেজা সাগর, এ ছবির পরিচালক গৌতম ঘোষসহ প্রযোজক হাবিবুর রহমান ও কলাকুশলীদের অনেক ধন্যবাদ। ১৯৪৭ সালের দেশভাগ এবং পরবর্তী সময়ে সীমান্তবর্তী এলাকার মানুষের সুখ-দুঃখের গল্প নিয়ে করা ‘শঙ্খচিল’ ছবিতে সবশেষ অভিনয় করেন কুসুম শিকদার। এ ছবিতে কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেতা প্রসেনজিতের বিপরীতে কাজ করে বেশ আলোচনায় আসেন তিনি। এরইমধ্যে ভারতের ৬৩তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জনের পাশাপাশি ২০১৬ সালে মন্ট্রিল বিশ্ব ফিল্ম উৎসব, আইএফএফআই ২০১৬-তে অফিসিয়াল সিলেকশনে ছবিটি প্রশংসিত হয়। এদিকে ‘শঙ্খচিল’-এর পর নতুন চলচ্চিত্র নিয়ে কি ভাবছেন জানতে চাইলে কুসুম শিকদার বলেন, ‘গহীনে শব্দ’, ‘লালটিপ’ ও ‘শঙ্খচিল’ ছবিগুলো আমার ক্যারিয়ারের জন্য বড় প্রাপ্তি। এগুলো একসঙ্গে মুক্তি পায়নি। দুবছর অন্তর মুক্তি পেয়েছে। যেকোনো ছবিতে কাজ করতে প্রস্তুত আমি। তবে সেই কাজের জন্য গল্প ও পরিবেশটা ভালো লাগতে হবে আমার। আমি বুঝেশুনেই সামনে কাজ করতে চাই। এদেশে ‘শঙ্খচিল’-এর মতো ছবি আরও বেশি হওয়া উচিত। কারণ, চলচ্চিত্র নিয়ে হতাশার গল্প আর শুনতে চাই না। চলচ্চিত্র দিয়ে আমার দেশ অনেক এগিয়ে যাক এটাই আমার একমাত্র স্বপ্ন। আর ভালো কাজ দিয়েই সেই স্বপ্ন পূরণ করতে হবে আমাদের। তাই নিম্নমানের কোনো ছবিতে কাজ করে সময় ও ইমেজ নষ্ট করার ইচ্ছে নেই আমার। বর্তমানে কুসুম ছোট পর্দার দর্শকের জন্য একটি ধারাবাহিকে কাজ করছেন। এর নাম ‘আস্থা’। এটি পরিচালনা করছেন এজাজ মুন্না। তবে টিভিতে টানা কাজ করেন না এই অভিনেত্রী। এর কারণ হিসেবে বলেন, টিভিতে টানা কাজ করার ইচ্ছে নেই। আবার একেবারে হারিয়ে যাওয়ারও ইচ্ছে নেই আমার। আমি বুঝেশুনে ছোট পর্দায় কিছু ভালো কাজ করছি। আর সামনে বড় পর্দায় ভালো কিছু কাজ করার ইচ্ছে রয়েছে। ২০০২ সালের লাক্স-আনন্দধারা মিস ফটোজেনিক প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করার পর আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি কুসুমকে। বড় পর্দার পাশাপাশি ছোট পর্দার অসংখ্য নাটক ও টেলিছবিতে কাজ করেছেন তিনি। অভিনয়ের বাইরে গানের চর্চাও রয়েছে তার। পাশাপাশি কবিতা লিখতেও পছন্দ করেন। গতবার গ্রন্থমেলায় ‘নীল ক্যাফের কবি’ শিরোনামে একটি কবিতার বই প্রকাশ করার পর বেশ সাড়াও পান এই অভিনেত্রী। ২০১৪ সালে তার লেখা কবিতার জন্য তিনি সেরা নতুন কবি বিভাগে সিটি আনন্দ আলো সাহিত্য পুরস্কার পান। আসছে গ্রন্থমেলায় নতুন বই আসবে কি-না জানতে চাইলে কুসুম বলেন, বই প্রকাশ করার ইচ্ছে তো রয়েছে। তবে লেখারই সময় পাচ্ছি না। অবশ্য গ্রন্থমেলার এখনও বেশ সময় বাকি আছে। তাই কাজের বাইরে নতুন কবিতা লেখার ইচ্ছে রয়েছে। দেখা যাক শেষ পর্যন্ত কি হয়। অন্য অনেক অভিনেত্রী থেকে একধাপ এগিয়ে রয়েছেন কুসুম সিকদার। মিডিয়ায় বেশকিছু কাজ দিয়ে সাফল্যের খাতায় লেখা হয়ে গেছে তার নাম। তাই সামনে ভালো কাজ দিয়েই দর্শকের সামনে আসতে চান তিনি।

  • পোশাকে মোদির ছবি, রাখির বিরুদ্ধে মামলা

    ডিপিসি বিনোদন ডেস্ক: রাখি প্রকাশ্যেই বলেন, তিনি মোদি ভক্ত। আর এবার সেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ছাপ দেয়া পোশাক পরার জন্য মামলা হল অভিনেত্রী রাখি সাওয়ান্তের বিরুদ্ধে। জয়পুরের কাঙ্করোলি পুলিশ স্টেশনে দায়ের হয়েছে এই মামলা। অভিযোগ করা হয়েছে, ওই পোশাকে অশ্লীলতা রয়েছে, প্রধানমন্ত্রীকে অপমান করেছেন তিনি। আগস্টে আমেরিকা সফরে যাওয়ার সময় রাখি পরেন ওই পোশাক। গোটা জামা জুড়ে ছিল প্রধানমন্ত্রীর ছবি। কিন্তু রাখির ওই পোশাক নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় কম হইচই হয়নি। পোশাকের ধরনটি অনেকের কাছেই মনে হয়েছে আপত্তিজনক।

  • আমিরের বাড়িতে শাহরুখ!

    ডিপিসি বিনোদন ডেস্ক: দিওয়ালী উপলক্ষে এক পার্টির আয়োজন করেন মিস্টার পারফেকশনিস্ট আমির খান। পার্টিতে উপস্থিত হয়েছিলেন বলিউড কিং শাহরুখ খান। সেখানে আমিরপত্নী কিরণের সঙ্গে স্ত্রী গৌরী খানকে নিয়ে শাহরুখ কার্ড খেলায়ও মেতে ওঠেন। পার্টি উপলক্ষে দাওয়াত দিয়েছেন বলিউডের কাছের বন্ধুদের। সে বন্ধুর তালিকায় শাহরুখ খানও ছিলেন। দেওয়ালির পার্টিতে আমিরের দাওয়াত স্বীকার করে স্ত্রী গৌরীকে নিয়ে সোজা উপস্থিত হয়েছেন শাহরুখ। শুধু তা–ই নয়, আমিরের স্ত্রী কিরণের সঙ্গে কার্ডও খেলেন শাহরুখ-গৌরী। পার্টিতে তোলা একটি ছবিতে দেখা যায় তাদের। তবে ছবিতে আমিরকে দেখা যায়নি।

  • এবার ভিন্ন সালমা

    ডিপিসি বিনোদন ডেস্ক: ক্লোজআপ ওয়ান প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর থেকে গান নিয়ে টানা ব্যস্ততার মধ্য দিয়ে সময় কাটাচ্ছেন মৌসুমী আক্তার সালমা। বিশেষ করে ফোক গানে একটি শক্ত অবস্থান তৈরি করেছেন তিনি। এরই মধ্যে তার ১০টি একক অ্যালবাম প্রকাশ হয়েছে। এসব অ্যালবামের মাধ্যমে ধারাবাহিকভাবে বেশ কিছু শ্রোতাপ্রিয় গান উপহার দিয়েছেন তিনি। অ্যালবামের পাশাপাশি চলচ্চিত্রেও প্লেব্যাকে করেছেন। আর স্টেজে তো তার ব্যস্ততা নিয়মিতই থাকে। সব মিলিয়ে এখন কেমন আছেন সালমা? কিভাবে কাটছে তার সময়? সালমা বলেন, খুব ভালো আছি সবার দোয়ায়। গান ও সংসার নিয়ে দিব্যি সময় চলে যাচ্ছে। এই দুটি ক্ষেত্রেই সময় দেয়ার চেষ্টা করি। আর মেয়ে স্নেহা তো এখন একটু বড় হয়েছে। তাই কাজ করতে আগের চেয়ে সুবিধা হয়েছে। বর্তমান ব্যস্ততা কি নিয়ে? মধ্যে পরীক্ষার কারণে অনেক শো বাতিল করেছিলাম। এখন আবার শো করছি। তবে আমি খুব বেছে বেছে বড় শোগুলোই করি। অনেক অনুরোধ থাকলেও সব ধরনের শো করা হয় না। শোর পাশাপাশি টিভি অনুষ্ঠান, নতুন গানের রেকর্ডিং নিয়েও ব্যস্ততা চলছে। এদিকে সালমার সর্বশেষ একক অ্যালবাম ‘অনুরাগের ঘরে’ প্রকাশ পায় গত বছর। প্রায় এক বছর পর নতুন একক অ্যালবামের কাজ শুরু করেছেন তিনি। নাম ‘মনমাঝি’। চারটি গান নিয়ে সাজানো হচ্ছে এ অ্যালবাম। এটি তার ক্যারিয়ারের ১১তম একক অ্যালবাম। এরই মধ্যে অ্যালবামের টাইটেল গানটির কাজ শেষ হয়েছে। বাকি তিনটি গানের সুর ও সংগীতের কাজও শেষ। এখন বাকি শুধু কণ্ঠ দেয়া। এ অ্যালবামের গানগুলো লিখেছেন জাহিদ আকবর, মাহমুদ মানজুর ও জিয়াউদ্দিন আলম। সুর ও সংগীত করেছেন মুশফিক লিটু, রেজোয়ান শেখ, আহমেদ হুমায়ুন ও জিয়াউদ্দিন আলম। এ প্রসঙ্গে সালমা বলেন, এবারের অ্যালবামটি একটু ভিন্নভাবে শ্রোতাদের কাছে আনতে চাই। আগের অ্যালবামগুলোতে ফোক বা লালনের গান বেশি করেছি। এ অ্যালবামে ফোক, মডার্ন ফোক, সেমি ফোক সবই আছে। শ্রোতারা আমার কণ্ঠে ভিন্ন স্বাদ পাবেন এবার। নতুন ইংরেজি বছর উপলক্ষে আগামী ৩১শে ডিসেম্বর ‘মনমাঝি’ অ্যালবামটি অনলাইনে প্রকাশ পাবে। ফোক গানের পাশাপাশি সালমার কণ্ঠে বেশ কিছু লালনের গানও শ্রোতামহলে প্রশংসিত হয়েছে। সামনে লালনের গানের অ্যালবাম করার ইচ্ছা আছে কিনা জানতে চাইলে এ শিল্পী বলেন, লালন সাঁইজির গান করতে আমার সবচেয়ে বেশি ভালো লাগে। আমি স্টেজ কিংবা টিভি প্রোগ্রামে সব সময় লালনের গান গাই। সাঁইজির গানের মতো ভালো লাগা অন্য গানে নেই। এ গান করতে হলে এর গভীরতায় পৌঁছতে হয়। আমি সব সময় বুঝে লালনের গান গাওয়ার চেষ্টা করি। লালনের গানে মনের তৃষ্ণাও মেটে। সামনে আমি অবশ্যই শুধু লালনের গান নিয়ে নতুন অ্যালবাম করবো। সেটা হতে পারে নতুন বছরেই। সালমা মূলত ফোক ও লালনের গানের জন্যই বেশি পরিচিত হলেও আধুনিক গানও করেছেন বেশ কিছু। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ক্লোজআপ প্রতিযোগিতার মাধ্যমে আমার কণ্ঠ থেকে ফোক ও লালনের গান শুনে অভ্যস্ত হয়ে গেছেন শ্রোতারা। এখন সালমা মানেই ফোক কিংবা লালনের গান। তবে এর বাইরে আমি বেশ কিছু আধুনিক গানও করেছি। এখনও করছি। ভালো মানের আধুনিক গানও আমি সামনে গাইতে চাই। একজন শিল্পী একটি গণ্ডির মধ্যেই বন্দি থাকবেন সেটি ঠিক নয়। গানের যেমন কোনো সীমানা নেই, তেমনি শিল্পীরও কোনো গণ্ডি নেই। হ্যাঁ, বিশেষত্ব থাকতে পারে। কিন্তু একই ধরনের গান তাকে গাইতে হবে সেটি ঠিক নয়। আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল, সুমন কল্যাণসহ অনেক সুরকারের সুরে বেশ কিছু গান করে রেখেছেন সালমা। এগুলো সামনে প্রকাশ পাবে। সব মিলিয়ে এখন অডিও ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা কেমন? সালমা বলেন, ভালোই মনে হচ্ছে। তবে আমি আমার গানের স্বত্ব সারা জীবনের জন্য কাউকে দিতে চাই না। সে কারণে নতুন যে গানগুলো করছি তার স্বত্ব নিজের কাছে রাখছি।

  • বিয়ে না করেও একসঙ্গে ১৩ বছর, তারপর বিচ্ছেদ!

    ডিপিসি বিনোদন ডেস্ক: চলতি বছরে বলিউড অনেকগুলো ব্রেক আপ আর ডিভোর্স দেখেছে। এবার সেই ব্রেক আপের তালিকায় সংযোজিত হল আরও একটি নাম। বিচ্ছেদ হয়ে গেল কমল হাসান ও গৌতমীর।দু’জনেই দক্ষিণী ছবির নামজাদা নায়ক-নায়িকা। কমল হাসান অবশ্য বহু হিট বলিউড ছবিরও নায়ক হয়েছেন। ছবি প্রযোজনা ও পরিচালনাতেও তিনি বেশ সফল। ১৩ বছর আগে ২০০৩ সালে গৌতমীর সঙ্গে তার একটি সম্পর্ক গড়ে ওঠে। আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে অবশ্য কখনওই করেননি তারা। কিন্তু স্বামী-স্ত্রীর চেয়ে তাদের ভালবাসা কোনো অংশেই কম ছিল না। লিভ ইন করতেন দু’জনে। কিন্তু এবার সেই সম্পর্কে এল ছেদ। আলাদা হয়ে গেলেন দু’জনে। একটি ব্লগ লিখে নিজেই এই কথা জানিয়েছেন গৌতমী। নিজের ব্লগে গৌতমী লিখেছেন, তার এবং কমলের পথ এখন একেবারেই আলাদা হয়ে গেছে। এবং কোনোভাবেই তাদের এই দূরত্ব মোচন আর সম্ভব নয়। ঠিক কী কারণে এই বিচ্ছেদ, তা অবশ্য স্পষ্ট করে বলেননি গৌতমী, কিন্তু এটা জানিয়েছেন যে, এই ব্রেক আপের সিদ্ধান্ত তার জীবনের সবচেয়ে কঠিন সিদ্ধান্তগুলোর একটি ছিল।

  • চিত্রগ্রাহকের প্রেমে মজেছেন চুমকি

    ডিপিসি বিনোদন ডেস্ক: সহশিল্পী নয়, একজন চিত্রগ্রাহকের প্রেমে মজেছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী, নাট্যকার ও নির্মাতা নাজনীন হাসান চুমকি। বেশ কিছুদিন ধরে এই প্রেমকাহিনী নিয়ে মিডিয়াপাড়ায় কানাঘুষা চলছে। শুধু প্রেমে মজেই ক্ষান্ত নন। ওই চিত্রগ্রাহকের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে মেলামেশাও করছেন চুমকি। এটা কোনো নাটকের গল্প নয়। অভিনেত্রী চুমকির বাস্তব জীবনের ঘটনা। তানভীর আনজুম নামের এক চিত্রগ্রাহকের সঙ্গে তিনি প্রেম করছেন অনেকদিন ধরেই। তবে বিষয়টি চুমকি কাউকে কোনোভাবে বুঝতে দেননি। কথায় আছে, ‘প্রেমের খবর বাতাসের আগে ওড়ে’। চুমকির ক্ষেত্রেও তাই ঘটেছে। তিনি না বুঝতে দিলেও ফাঁস হয়ে গেছে খবরটি। সে সূত্র ধরে সত্যতা জানতে আরো অনুসন্ধানে পাওয়া গেছে চিত্রগ্রাহকের সঙ্গে চুমকির বেশকিছু ঘনিষ্ঠ ছবি। আর সব প্রমাণ সংগ্রহ করে তার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চালানো হয়। কিন্তু চুমকির গ্রামীণ ও টেলিটক দুটো নাম্বারই বন্ধ পাওয়া যায়। অবশ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ঠিকই পাওয়া গেছে তাকে। সেখানেই কথা হয় চুমকির সঙ্গে। প্রেমের গুঞ্জনের বিষয়ে তাকে প্রশ্ন করা হলে প্রথমে এড়িয়ে যেতে চান। অনেকটা মজারছলেই তিনি বলেন, একসঙ্গে কাজ করতে গেলে দুজন মানুষকে নিয়ে কথা উঠবেই। আর আমার কাছেও খবরটা শুনে বেশ মজা লাগছে। এখানেই চুমকির সঙ্গে কথা শেষ হয়ে যায়নি। প্রেমের খবরটি হেসে উড়িয়ে দিতেই চিত্রগ্রাহক তানভীরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ ছবির বিষয়টি জানানো হয় তাকে। ফেসবুকের ওই কথোপকথনে দুজনের একটি হৃদ্যতাপূর্ণ ছবি তাকে দেখানো হয়। এরপর চুমকি বলেন, আপনি এই ছবি দিয়ে কি করতে চান সেটা বলেন। আপনি তো নতুন সাংবাদিক নন। আপনাকে আমার কিছু বলার নেই। এমনই মন্তব্য করে নাটকের দৃশ্যায়নে যাওয়ার কথা বলে কথোপকথন শেষ করেন চুমকি। এরপর অবশ্য কাজ শেষ করে চুমকি কথোপকথনে ফিরে আসেন। আবারো প্রশ্ন, প্রেমের গুঞ্জন নিয়ে আপনার মন্তব্য কি? চুমকি বলেন, আপনি যার কাছ থেকে ছবি সংগ্রহ করেছেন তার সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। আপনি তার সঙ্গে কথা বলেন। প্রশ্নের সঙ্গে উত্তরের কোনো মিল না পেয়ে সত্যতা নিশ্চিত করার জন্য চুমকিকে আবার প্রশ্ন। সত্যটা কি? তিনি বলেন, আমার যা বলার আমি বলে দিয়েছি। একজন অভিজ্ঞ সাংবাদিক হিসেবে আমাকে কি আর প্রশ্ন করা উচিত? চুমকির এমন মন্তব্যেই অনেকটা পরিষ্কার হয়ে গেছে যে তার ও তানভীরের প্রেমের সম্পর্কটি নিশ্চিত। উল্লেখ্য, মঞ্চ ও টিভি নাটকে অভিনয়ের জন্য বেশ সুখ্যাতি রয়েছে নাজনীন হাসান চুমকির। ১৯৯৯ সালে ‘যেতে যেতে অবশেষে’ নাটকের মধ্যদিয়ে অভিনয় যাত্রা শুরু হয় তার। এর আগে অবশ্য মঞ্চে অনেক কাজ করেছেন তিনি। টিভি ও মঞ্চের পাশাপাশি চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেন চুমকি। ২০০৬ সালে ‘ঘানি’ ছবির জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন এ অভিনেত্রী। স্বামী তুষারকে নিয়ে তার বেশ সুখের সংসারই বলে জানা নিকটজনদের। মিডিয়ায়ও সবাই তাই জানেন। কিন্তু এরপরও স্বামী রেখে চিত্রগ্রাহক তানভীরের সঙ্গে কেন তিনি প্রেমের সম্পর্কে জড়াতে গেলেন সেটা নিয়েই প্রশ্ন উঠেছে অনেকের মনে।

  • ভারতীয় চলচ্চিত্র উৎসবে শঙ্খচিল

    ডিপিসি বিনোদন ডেস্ক: বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ইমপ্রেস টেলিফিল্মের ছবি ‘শঙ্খচিল’ ৪৭তম ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল অফ ইন্ডিয়ার ‘ইনডিয়ান প্যানারমা’ বিভাগে মনোনয়ন পেয়েছে। ভারত সরকারের আয়োজনে ভারতের পর্যটন নগরী গোয়া -এর পানাজীতে আগামী ২০-২৮ নভেম্বর ২০১৬-এ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল অফ ইন্ডিয়ার (ইফ,ফি) ৪৭তম আসর। এবারে ‘ইনডিয়ান প্যানারমা’ বিভাগে প্রদর্শিত হবে সালমান খানের ‘সুলতান’, সঞ্জয় লীলা বানসালীর ‘বাজিরাও মাস্তানি’, অক্ষয় কুমারের ‘এয়ার লিফ্ট’ ইত্যাদি চলচ্চিত্র। এসব ছবির সঙ্গে রয়েছে ‘শঙ্খচিল’। বাংলাদেশ ও ভারতের সীমান্ত জনপদের সমস্যা নিয়ে নির্মিত এ চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেছেন গৌতম ঘোষ। ‘শঙ্খচিল’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জি, কুসুম শিকদার, সাঁঝবাতি, মামুনুর রশিদ, প্রিয়াংশু চ্যাটার্জি, দিপঙ্কর দে, রাজেশ সিন্দে প্রমুখ। চলতি বছরের ১৪ এপ্রিল ‘শঙ্খচিল’ ছবিটি বাংলাদেশ ও ভারতে মুক্তি পায়।

  • মমতাজের কারিশমা

    ডিপিসি বিনোদন ডেস্ক: ক্যারিয়ারের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত অসংখ্য জনপ্রিয় গান উপহার দিয়েছেন ফোকসম্রাজ্ঞী মমতাজ। তবে মাঝে বিভিন্ন ব্যস্ততার কারণে নতুন গান ও অ্যালবাম কয়েক বছর প্রকাশ করেননি। মধ্যে একটি অ্যালবাম করলেও সেটি নিয়ে তেমন একটা সরব ছিলেন না মমতাজ। তার প্রচার প্রচারণায়ও অংশ নিতে পারেননি। এদিকে মমতাজ এ সময়টায় ব্যস্ত ছিলেন স্টেজ শো নিয়ে। সিনেমার গানেও নিয়মিত পাওয়া গেছে তাকে। গত বছরই ‘নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ’ ছবিতে প্লেব্যাকের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান এ তারকা। আর চলতি বছরে এসে যেন পুরোপুরি সরব হয়েছেন এ শিল্পী। অ্যালবাম, স্টেজ, প্লেব্যাক- প্রত্যেকটি ক্ষেত্রেই সুসময় বিরাজ করছে তার। আর তারই ধারাবাহিকতায় গত ঈদে প্রকাশ পায় মমতাজের নতুন গান ‘লোকাল বাস’। লুৎফর হাসান ও গোলাম রাব্বানির কথায় এ গানটির সুর ও সংগীত করেন প্রীতম হাসান। এ গানটিতে মমতাজের সঙ্গে র্যাাপ করেছেন শাফায়াত। গানটির মিউজিক ভিডিওটি নির্মাণ করেন তানিম রহমান অংশু। দীর্ঘ সময় পর ভিন্নধর্মী ও মজার এ গানটি দিয়ে বাজিমাত করেন মমতাজ। গানটি ইতিমধ্যে ব্যাপক শ্রোতাপ্রিয়তা পেয়েছে। মমতাজকে অনেকেই বলে থাকেন গ্রামবাংলার ফোকসম্রাজ্ঞী। কিন্তু এ গানটির মাধ্যমে শহুরে শ্রোতাদের কাছেও সমাদৃত হচ্ছেন তিনি। ‘লোকাল বাস’-এর ভিডিওতে তার পারফরম্যান্স অন্যরকম মাত্রা যোগ করেছে গানটিতে। এদিকে এ গান ছাড়াও মমতাজ পহেলা বৈশাখ ও ঈদে দুটি একক অ্যালবাম প্রকাশ করেন। এ দুটি অ্যালবামের সব গানের কথা লিখেছেন দেলোয়ার আরজুদা শরফ। দুটি একক ছাড়াও কয়েকটি দ্বৈত ও মিশ্র অ্যালবামেও গান গেয়েছেন মমতাজ। এরই মধ্যে শফিক তুহিনের কথা ও সুরে অনন্য মামুন পরিচালিত ‘আমি তোমার হতে চাই’ ছবিতে প্লেব্যাকও করেছেন মমতাজ। তার কণ্ঠের এ গানটিতে পারফর্ম করতে দেখা যাবে ভারতের আইটেম গার্ল রাখী সাওয়ান্তকে। সবকিছু মিলিয়ে চলতি বছরটাকে মমতাজের ফেরার বছর বললেও ভুল হবে না। কারণ, এ বছর শুধু প্রত্যাবর্তনই করেননি তিনি, নিজের কারিশমা নতুন করে শ্রোতাদের দেখিয়েছেন। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মমতাজও যে এগিয়ে যেতে পারদর্শী, সেটা প্রমাণ করেছেন। চলতি বছর আরো কয়েকটি গান প্রকাশের কথা রয়েছে মমতাজের। পাশাপাশি প্রস্তুতি নিচ্ছেন আগামী বছরের ভালোবাসা দিবস ও পহেলা বৈশাখের অ্যালবামেরও। এ বিষয়ে মমতাজ বলেন, এ বছর অনেক গান করেছি অনেক দিন পর। বিশেষ করে এখন যেখানেই যাচ্ছি কেবল ‘লোকাল বাস’-এর জন্য অভিনন্দন জানাচ্ছেন সবাই। এ গানটির ভিন্নধর্মী কনসেপ্ট শ্রোতা-দর্শক দারুণভাবে গ্রহণ করেছেন। সামনে এ ধরনের গান আরো করতে চাই। ডিসেম্বর পর্যন্ত আরো কিছু নতুন গানে কণ্ঠ দেবো। সেগুলোর কাজই এখন করছি। দেখা যাক কী হয়।॥

  • শাহিদকেই বিয়ে করবেন দীপিকা!

    ডিপিসি বিনোদন ডেস্ক: শাহিদ কাপুরকে স্বামী হিসেবে চেয়েছেন দীপিকা পাড়ুকোন নিজেই! শাহিদকে তাঁর এতটাই পছন্দ যে তাঁকে পাওয়ার জন্য দু’জনকে বাতিল করে দিয়েছেন তিনি! বলি হচ্ছেটা কী ? শাহিদ কাপুর না বিবাহিত পুরুষ? এমনকী, এক কন্যাসন্তানের বাবাও? তাতে কিছুই আটকাচ্ছে না! খবর পাকা, দীপিকার স্বামী হতে রাজি হয়েছেন শাহিদও! আর, রণবীর সিং বেছে নিয়েছেন ব্যর্থ প্রেমের, অচরিতার্থ কামের দহন দিন! এই সমীকরণেই তিনজনকে দেখা যাবে সঞ্জয় লীলা বনশালির নতুন ছবি ‘পদ্মাবতী’তে। শাহিদ কাপুর যে প্রোজেক্ট ‘পদ্মাবতী সই করেছেন, সে কিন্তু দীপিকার অনুরোধেই। প্রথমে ঠিক ছিল ঐতিহাসিক এই কাহিনিতে দীপিকা পাড়ুকোন অভিনয় করবেন চিতোরের রানি পদ্মিনীর ভূমিকায়, রণবীর সিং হবেন পদ্মিনীর রূপমুগ্ধ আলাউদ্দিন খিলজি। আর, ফওয়াদ খানকে বাছা হয়েছিল পদ্মিনীর স্বামী রাণা রতন সিংয়ের চরিত্রে অভিনয়ের জন্য। তা, ফওয়াদের তো আর বলিউডের ছবি করা হয়ে উঠছে না। এর পর তাই ‘মশান’ এবং ‘রমন রাঘব’ অভিনেতা ভিকি কৌশলকে বাছেন বনশালি! রতন সিংয়ের চরিত্রের জন্য! কিন্তু, বেঁকে বসেন দীপিকা! কানাঘুষোয় শোনা যাচ্ছে, তিনি না কি অনুরোধ জানিয়েছেন পরিচালকের কাছে, ভিকি কৌশলকে বাদ দেওয়া হোক! কেন না, তাঁর চেয়ে স্টারডমে অনেকটাই ছোট ভিকি, অতএব সু-অভিনেতা হলেও দু’জনের কেমিস্ট্রি জমবে না! এর পর দীপিকা নিজেই বলেন শাহিদ কাপুরের কথা। বনশালি শাহিদের কাছে প্রস্তাব নিয়ে গেলে শাহিদ রাজিও হয়ে যান! বেশ কথা! কিন্তু রণবীর-দীপিকা-শাহিদের ত্রিকোণ ব্যাপার-স্যাপার শুধু রুপোলি পর্দাতেই আটকে থাকছে না। সম্প্রতি শাহিদের এক বক্তব্যে তার প্রমাণ মিলেছে। তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল, দুই নায়কওয়ালা এই ছবিতে কাজ করতে তিনি কি স্বচ্ছন্দ বোধ করছেন? রণবীরের সঙ্গে স্টারডম ভাগ হয়ে যাচ্ছে, এই ভয় কি তাঁর নেই? শাহিদ জবাবে পরোক্ষে ছোটই করলেন রণবীরকে। বললেন, ‘’এটা মোটেও দুই নায়কের ছবি নয়। এই ছবি তিন প্রধান চরিত্রের! দীপিকা, আমি আর রণবীর- সবাই এই ছবিতে সমান গুরুত্বপূর্ণ!’’বোঝো কাণ্ড! পর্দার লড়াই এবার কি তাহলে জীবনেও শুরু হল বলে?

  • নতুন গানে ডলি সায়ন্তনী

    ডিপিসি বিনোদন ডেস্ক: ঈদের পর টানা বেশ কয়েকদিন মালয়েশিয়ায় থাকার পর দু’দিন আগে দেশে ফিরেছেন শ্রোতাপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী ডলি সায়ন্তনী। ফিরেই তিনি তরুণ সুরকার সংগীত পরিচালক প্রীতমের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। এবার তাকে দিয়েই নতুন একটি গান করবেন ডলি সায়ন্তনী। গানটি কেমন হবে সে সম্পর্কে একটি ধারণাও দিয়েছেন এ শিল্পী। তিনি বলেন, ভালোবাসা দিবসের আগে এবার একটু ফোক ঘরানার গান করবো। গানের কথা, সুর এবং সংগীতায়োজনে যাতে ভিন্নতা এবং নতুনত্ব থাকে সেদিক বিবেচনা করেই প্রীতমকে দিয়ে গান করাচ্ছি। গানটির রেকর্ডিং শেষে বেশ আয়োজন করেই এর মিউজিক ভিডিও নির্মাণ করা হবে। কোনোরকম কার্পণ্য থাকবে না। হতে পারে নতুন বছরে নতুন রূপে আমাকে গানে উপস্থাপনের জন্য এটি নতুন একটি চ্যালেঞ্জও। তাই এই গানটি আমি বেশ যত্ন নিয়েই করতে চাচ্ছি। ডলি সায়ন্তনী জানান, সপ্তাহ দু’য়েকের মধ্যেই গানটির রেকর্ডিংয়ের কাজ শেষ হয়ে যাবে। এর পরপরই মিউজিক ভিডিও নির্মাণের প্রস্তুতি নেবেন তিনি। এদিকে ২০ দিনেরও বেশি বড় মেয়ে কথাকে নিয়ে মালয়েশিয়া ছিলেন ডলি সায়ন্তনী। সেখানে তিনি সেগে ইউনিভার্সিটিতে কথাকে বিবিএ-তে ভর্তি করিয়ে এসেছেন। সম্প্রতি ডলি সায়ন্তনীর সর্বশেষ একক অ্যালবাম ‘একলা হবি’ বাজারে আসে সাউন্ডটেকের ব্যানারে। এ অ্যালবামে মোট গান ছিল ৮টি। এটির সুর সংগীতায়োজন করেছেন নাজির মাহমুদ, মাহমুদ জুয়েল ও ফিরোজ। এদিকে রোজার ঈদের আগে ডলি সায়ন্তনী সর্বশেষ মোস্তাফিজুর রহমান পরিচালিত ‘হৃদয় ছোঁয়া ভালোবাসা’ চলচ্চিত্রে ফিরোজ প্লাবনের সুর-সংগীতে প্লে-ব্যাক করেছিলেন। ঈদুল আজহায় তিনি প্রথমবারের মতো একটি নাটকে অভিনয় করেন। আরিফ খানের নির্দেশনায় ‘শ্রাবণ এসেছিল গান হয়ে’ নামের এ নাটকে তার সহশিল্পী ছিলেন শুভ্রদেব, আগুন, মেহরাব, সিঁথি সাহা ও পড়শী। জীবনের প্রথম হলেও নাটকটিতে ডলি সায়ন্তনীর অভিনয় বেশ প্রশংসিত হয়।

  • এবার পুরুষ যৌনকর্মীদের নিয়ে তৈরি হল বাংলা ছবি!

    ডিপিসি বিনোদন ডেস্ক: কলকাতার মতো শহরে কীভাবে এই ধরনের পেশায় জড়িয়ে পড়েন অল্প বয়সী ছেলেরা? সাহেব-প্রিয়াঙ্কার নতুন ছবির ট্রেলারে রয়েছে তার ইঙ্গিত। কলকাতার পুরুষ যৌনকর্মীরা রয়েছেন বহু দশক ধরে। একটা সময় বলা হতো, ফ্রি স্কুল স্ট্রিটে যদি কোনো সুবেশ পুরুষকে দেখা যায় হাতে রুমাল বেঁধে দাঁড়িয়ে রয়েছেন, তবে বুঝতে হবে তিনি আসলে যৌনকর্মী। ঠিক কবে থেকে কলকাতায় ‘জিগোলো’ পেশাটির উদ্ভব হয়, সে সম্পর্কে কোনো প্রামাণ্য তথ্য সেভাবে পাওয়া যায় না। এই পুরুষতান্ত্রিক সমাজে নারী যৌনকর্মী, এসকর্ট সার্ভিস বা সোনাগাছির অন্দরমহল নিয়ে তাড়া তাড়া রিসার্চ পেপার প্রকাশিত হয়েছে কিন্তু পুরুষ যৌনকর্ম নিয়ে কলকাতা দূরে থাকে, এদেশেই খুব বেশি গবেষণা-তথ্যানুসন্ধান ঘটেনি। তার একটি বড় কারণ হল, পুরুষ যৌনকর্মীরা সম্পূর্ণতই স্বেচ্ছায় এই পেশায় আসেন। এখানে কোনো ট্র্যাফিকিং ঘটে না। মফস্বলের বা গ্রামের মেয়েদের যেমন তথাকথিত ‘চরিত্র’ নষ্ট করে এই পেশার দিকে ঠেলে দেওয়া হয়, পুরুষদের ক্ষেত্রে তেমনটা হওয়ার অবকাশ নেই। কিন্তু তা বলে এই নয় যে সব পুরুষ যৌনকর্মীই কোনও প্রতিকূল পরিস্থিতি ছাড়াই, নেহাত শখে এই পেশা বেছে নেন। চরম দারিদ্র, প্রিয়জনদের চিকিৎসার বিপুল খরচ, অনেক সময় সন্তানের মুখ চেয়েও বহু পুরুষ অল্প সময়ে অনেক বেশি অর্থ উপার্জনের পথ হিসেবে বেছে নেন এই পেশা। বছর কয়েক আগে মুক্তিপ্রাপ্ত বলিউড ছবি ‘দেশি বয়েজ’ এই বিষয়ের উপর ভিত্তি করে নির্মিত হলেও, সেখানে উপস্থাপন ছিল একেবারেই বাণিজ্যিক এবং অনেকটাই কমিক্যাল। কিন্তু হিন্দি মশালা ছবির রেসিপি অনুসারে উচ্চবিত্ত পার্টিতে মেয়েদের মনোরঞ্জন করা আর বাস্তবের মাটিতে যৌনক্ষুধাতাড়িত কোনও প্রৌঢ়াকে শারীরিক তৃপ্তি দেয়া এক জিনিস নয়। সেখানে হাস্যরসের কোনো অবকাশ নেই। দীর্ঘদিন এই পেশায় থাকতে থাকতে তাই অনেক যুবকই মানসিক রোগগ্রস্ত হয়ে পড়েন। তাঁদের জীবনযাপন আর স্বাভাবিক থাকে না। অনেকটা এমনই এক গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে রাজীব চৌধুরীর প্রথম ছবি ‘রোম্যান্টিক নয়’। সম্প্রতি মুক্তি পেল এই ছবির ট্রেলার।

E-mail : info@dpcnews24.com / dpcnews24@gmail.com

EDITOR & CEO : KAZI FARID AHMED (Genarel Secratry - DHAKA PRESS CLUB)

Search

Back to Top