• চ্যাম্পিয়ন্স লীগে সর্বোচ্চ ১৫ গোল রোনালদোর

    চ্যাম্পিয়ন্স লীগের সেমি-ফাইনালের হোম ও অ্যাওয়ে ম্যাচে ৪-৩ গোলে বায়ার্ন মিউনিখকে পেছনে ফেলে টানা তৃতীয় বারের মত ফাইনাল নিশ্চিত করেছে স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ। আগামী ২৬ মে ইউক্রেনের কিয়েভে ফাইনালে লড়বে ১২ বারের চ্যম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ। টুর্নামেন্টের অপর দুই সেমি-ফাইনালিস্ট লিভারপুল ও রোমা’র মধ্যকার একটি ক্লাব ফাইনালে রিয়ালের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। এখনো পর্যন্ত ক্লাবের মত গোলের দিকেও সবাইকে ছাড়িয়ে মৌসুমের সর্বোচ্চ গোলদাতার আসন দখল করে রেখেছেন রিয়ালের পর্তুগাল সুপার স্টার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। তার গোল সংখ্যা ১৫টি। টুর্নামেন্টে ১০টি করে গোল করে যৌথভাবে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছেন লিভারপুলের দুই কৃতি ফুটবল তারকা ফিরমিনো ও সালাহ। ৮ গোল নিয়ে নিয়ে যৌথভাবে তৃতীয় অবস্থানে আছেন লিভারপুলের আরেক তারকা সাদিও মানে ও সেভিয়ার স্ট্রাইকার বেন ইয়েদার। ৭ গোল নিয়ে চতুর্থ অবস্থানে আছেন পিএসজির কাভানি, রোমার জেকো ও টোটেনহ্যামের কেন। ইউরো তথা বিশ্ব ফুটবলের দুই আলোচিত তারকা বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন সুপার স্টার লিওনেল মেসি ও পিএসজির ব্রাজিলীয় তারকা নেইমার টুর্নামেন্টে ছয়টি করে গোল পেয়েছেন।

  • ফাইনালে উঠার লড়াই বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ কিরগিজস্তান

    স্বাগতিক বাংলাদেশ সেমিফাইনালে পেয়েছে ‘বি’ গ্রুপের রানার্সআপ দল কিরগিজস্তানকে। আগামীকাল (বুধবার) মিরপুর শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধু এশিয়ান সিনিয়র মেনস সেন্ট্রাল জোন ইন্টারন্যাশনাল ভলিবল চ্যাম্পিয়নশিপের দুটি সেমিফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে। বিকেল ৫টায় খেলবে বাংলাদেশ ও কিরগিজস্তান এবং বিকেল ৩টায় দ্বিতীয় সেমিতে লড়বে তুর্কিমেনিস্তান ও নেপাল।বাংলাদেশ ও কিরগিজস্তান দ্বিতীয় সেমিফাইনালে লড়বে বিকেল ৫টায় । বর্তমান চ্যাম্পিয়ন হিসেবে বাংলাদেশের এই ম্যাচের ওপরই সবার নজর থাকবে। বাংলাদেশের ম্যাচে স্টেডিয়াম ভর্তি দর্শক থাকছে প্রতিদিনই। আগামীকালও এর ব্যতিক্রম হবে না। বাংলাদেশ সেমিফাইনালে খেলছে নিজেদের শ্রেষ্ঠত্য প্রমাণ দিয়েই। কারণ ‘এ’ গ্রুপে বাংলাদেশ অসাধারণ খেলে নেপাল ও মালদ্বীপকে বীরের বেশে হারিয়ে গ্রুপ সেরা হয়ে সেমিফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করে। বাংলাদেশ তাদের প্রথম ম্যাচে নেপালকে ৩-১ এবং মালদ্বীপকে ৩-০ সেটে হারিয়েছিল। অন্যদিকে কিরগিজস্তান ‘বি’ গ্রুপে আজই(মঙ্গলবার) সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে। আজ তারা গ্রুপের শেষ ম্যাচে ৩-২ সেটে উজবেকিস্তানকে হারায়। তবে প্রথম ম্যাচে ০-৩ সেটে তুর্কিমেনিস্তানের কাছে শোচনীয় ভাবে হেরেছিল।দিনের প্রথম সেমিফাইনালে বিকেল ৩টায় লড়বে তুর্কিমেনিস্তান ও নেপাল। তুর্কিমেনিস্তান তাদের গ্রুপেও দুটি ম্যাচেই দারুণ খেলে অপরাজিত থেকে সেমির টিকিট পায়। তুর্কিমেনিস্তান গ্রুপ পর্বে ৩-০ সেটে কিরগিজস্তানকে ও উজবেকিস্তানকে ৩-১ সেটে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়। আর নেপাল ‘এ’ গ্রুপের রানার্স আপ হয়ে কাল লড়বে ফাইনালের জন্য। নেপাল গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে ১-৩ সেটে বাংলাদেশের কাছে হেরেছিল। শেষ ম্যাচে ৩-০ সেটে মালদ্বীপকে হারিয়ে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে।আজ (মঙ্গলবার) গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে একমাত্র খেলায় লড়েছিল কিরগিজস্তান ও উজবেকিস্তান। এই ম্যাচের মাধ্যমেই কিরগিজস্তান সেমিফাইনালের টিকিট পায় ৩-২ সেটে জয়ী হয়ে। এই ম্যাচটি এবারের আসারে পুরো ৫টি সেটই খেলা হয়েছে। উপভোগ্য ম্যাচ ছিল। দুই দলের সামনেই সেমিতে যাওয়ার সুযোগ ছিল। শেস পর্যন্ত কিরগিজস্তানই জয়ী হয়।

  • বিজিবি-বিএসএফ প্রীতি কাবাডি খেলায় বিজিবি চ্যাম্পিয়ন

    বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) এবং ভারতের বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স (বিএসএফ) এর মধ্যে মহাপরিচালক পর্যায়ে আজ মঙ্গলবার (২৪এপ্রিল) সকালে সীমান্ত সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় পিলখানাস্থ বিজিবি সদর দপ্তরে। সীমান্ত সম্মেলন উপলক্ষে দুই দেশের মধ্যে পারস্পারিক সম্পর্ক সুদৃঢ় করার লক্ষ্যে সোমবার (২৩এপ্রিল) সন্ধ্যায় বিজিবির হেড কোয়ার্টারে বীর উত্তম ফজলুর রহমান খন্দকার মিলনায়তনে বিজিবি ও বিএসএফ এর মধ্যে এক প্রীতি কাবাডি খেলা অনুষ্ঠিত হয়। দুই দেশের প্রীতি কাবাডি খেলায় চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। খেলার শুরু থেকেই উভয় দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে চলে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বীতা। প্রথমার্ধের শুরু থেকেই চলে পয়েন্ট নেয়ার লড়াই। প্রথমার্ধে বিএসএফ এগিয়ে থাকে ১৫-১৩ পয়েন্টে। এরপর দ্বিতীয়ার্ধে বিজিবি খেলায় ফেরার চেষ্টা চালায় এবং অসাধারণ ভাবে শেষ পর্যন্ত ৩০-২৫ পয়েন্টে বিএসএফ কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়। ম্যাচে সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন বিজিবি দলের অধিনায়ক নায়েক জাকির হোসেন। খেলা শেষে বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো: সাফিনুল ইসলাম, এনডিসি, পিএসসি এবং বিএসএফ এর মহাপরিচালক শ্রী কে কে শর্মা, আইপিএস খেলোয়াড়দের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। এসময় দুই দেশের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

  • “তীর গো ফর গোল্ড” প্রজেক্টের আওতায় ‘তীর আরচ্যারী প্রতিভা অন্বেষণ কর্মসূচী-২০১৮’

    সিটি গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় বাংলাদেশ আরচ্যারী ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় প্রথম বারের মত “তীর গো ফর গোল্ড” প্রজেক্টের আওতায় ‘তীর আরচ্যারী প্রতিভা অন্বেষণ কর্মসূচী-২০১৮’ উপলক্ষে আগামী ২১ এপ্রিল-২০১৮, শনিবার, সকাল ১১:০০ মি: বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের ডাচ্-বাংলা ব্যাংক অডিটোরিয়ামে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে নির্বাহী পরিচালক (বিক্রয় ও বিপণন) জনাব শোয়েব মো: আসাদুজ্জামান। ফেডারেশনের সহ-সভাপতি জনাব মো: মাহফুজুর রহমান সিদ্দিকী, প্রশিক্ষণ ও উন্নয়ন কমিটির আহ্বায়ক জনাব মো: আনিসুর রহমান দিপু, নির্বাহী সদস্য জনাব মো: ফারুক ঢালী। উক্ত সংবাদ সম্মেলনে কর্মসূচীর তথ্যাদি অবহিত করেন (তথ্যাদির কপি সংযুক্ত) এবং সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন বাংলাদেশ আরচ্যারী ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক কাজী রাজীব উদ্দীন আহমেদ চপল।

  • শোক সংবাদ

    বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের প্রাক্তন সদস্য এবং আন্তর্জাতিক কাবাডি রেফারী জনাব গোলাম হাফেজ আজ সকাল ৮:৩০ মিনিটের সময় নিজ বাসা ওয়ারী, ঢাকায় ইন্তেকাল করেন (ইন্নানিল্লাহে ....... রাজেউন) । তাঁর মৃত্যুতে বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সম্মানিত সভাপতিসহ ফেডারেশনের সকল কমকর্তা ও কমচারীগণ গভীর শোক প্রকাশ করেন এবং মরহুমের রুহের মাগফেরাত ও তাঁর পরিবারের প্রতি সমবেদন জ্ঞাপন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর।

  • অষ্ট্রেলিয়ার গোল্ডকোষ্ট শহরে অনুষ্ঠিত ২১তম কমনওয়েলথ গেমসে বাংলাদেশের শ্যূটিং

    অষ্ট্রেলিয়ার গোল্ডকোষ্ট শহরে অনুষ্ঠিত ২১তম কমনওয়েলথ গেমসে ১২ এপ্রিল ২০১৮ইং তারিখে বাংলাদেশের শ্যূটিং (‘মহিলা ৫০মি. রাইফেল প্রোন) এবং রেসলিং (পুরুষ ফ্রিষ্টাইল ৭৪ কেজি) দলের খেলা অনুষ্ঠিত হয়। মহিলাদের ৫০মি. রাইফেল প্রোন ইভেন্টে অংশগ্রহণকারী ২০ জন প্রতিযোগির মধ্যে বাংলাদেশের শ্যূটার মিস সুরাইয়া আক্তার এবং মিস শিল্পা শারমিন যথাক্রমে ৬০৪.৩ পয়েন্ট এবং ৫৯৯.২ পয়েন্ট অর্জন করে তারা যথাক্রমে ১৪তম স্থান এবং ১৭তম স্থান লাভ করেন। তারা চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় (শেষ আটে) উত্তীর্ণ হতে পারেন নাই। অপর দিকে রেসলিং ৭৪ কেজিতে মোহাম্মদ আলী আমজাদ ১ম ম্যাচে কিরিবাতির টিটু লোয়াবো কে পরাজিত করেন এবং পরের ম্যাচে নাইজেরিয়ার প্রতিযোগি এসিসকোর্ট এবিমিনফাগ এর নিকট পরাজিত হয়ে পরবর্তী রাউন্ডে যেতে ব্যর্থ হন।

  • আগামীকাল শ্যুটিংয়ে নামছে বাংলাদেশ

    অস্ট্রেলিয়ার গোল্ডকোস্টে চলমান সাঁতার, ভারোত্তোলন থেকে কোন সুখবরই পায়নি বাংলাদেশ। লাল-সুবজের জার্সিতে ওই দুটি ইভেন্ট খুব ভালে হয়নি। শুধুমাত্র আজ মহিলাদের ৬৩ কেজি ওজন শ্রেণীতে মাবিয়া আকতার সীমান্ত ১৩ জনের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে হয়েছে ষষ্ঠ। যা ইতোপুর্বে আর কখনো অর্জিত হয়নি। আগামীকাল শ্যুটিংয়ে নামছে বাংলাদেশ। এই ইভেন্টটিকে ঘিরেই সব আশা-ভরসা বাংলাদেশ শিবিরে। কমনওয়েলথ গেমসের জন্য বাংলাদেশ দল অস্ট্রেলিয়া সফরের আগে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের (বিওএ) মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা নিজেও বলেছিলেনÑ আমাদের একমাত্র ভরসা শ্যুটিং। অন্য ক্রীড়াবিদরা গোল্ডকোস্ট সফরে যাচ্ছে শুধুমাত্র অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য। যা এসএ গেমসে কাজে লাগবে। বিওএ মহাসচিবের কথামতে, গেমস শুরুর কিছুদিন আগেই অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশ্যে উড়াল দিয়েছিল শ্যুটিং দল। লক্ষ্য এখানকার পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাওয়ানো। অস্ট্রেলিয়ার গেম ভিলেজে বাংলাদেশ দলের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি বলেছিলেন অনুশীলন ভালো হচ্ছে। এখন সবার দৃষ্টি নিবদ্ধিত থাকবে বেলমন্ট শ্যুটিং সেন্টারের দিকে। যেখানে রোববার লক্ষ্যভেদের লড়াইয়ে নামবেন বাংলাদেশ দলের শ্যুটার রাব্বি হাসান মুন্না, আবদুল্লাহ হেল বাকী, আরদিনা ফেরদৌস ও আরমিন আশা। এদের মধ্যে পুরুষদের ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন মুন্না ও বাকী। মেয়েদের ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে লড়বেন আরদিনা ও আসা। বাংলাদেশ শ্যুটিং স্পোর্টস ফেডারেশনের মহাসচিব ইন্তেখাবুল হামিদ অপু বাসসকে বলেন, ‘শ্যুটাররা মানসিকভাবে চাঙ্গা রয়েছে। প্রস্তুতিও ভালো হয়েছে। তবে ইংল্যান্ড, ভারত ও সিঙ্গাপুরের মতো দেশগুলোও জোড়ালো প্রস্তুতি নিয়ে এসেছে। সুতরাং আমাদের তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পড়তে হবে।’ শ্যুটিংয়ে ভারতকেই প্রধান প্রতিপক্ষ হিসেবে ভাবছে বাংলাদেশ। অপু বলেন, ‘ভারত ইতোমধ্যে অনেক দূর এগিয়ে গেছে। তাদের অলিম্পিক শ্যুটাররাই এখানে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে। আমরা যেখানে ওয়াইল্ডকার্ড নিয়ে অলিম্পিকে যাই, সেখানে তারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে কোয়ালিফাই হয়। গত আসরেও তাদের আটজন শ্যুটার কোয়ালিফাই হয়ে অলিম্পিকে লড়েছে। যদিও পদক আনতে পারেনি। যেহেতু তারা যোগ্যতা অর্জনের মাধ্যমে অলিম্পিকে খেলে, তাই তাদের সঙ্গে টেক্কা দেয়া কঠিন হবে।’ তবে অপু আত্মবিশ্বাস নিয়ে বলেন, ‘তারপরও আমরা প্রস্তুত। ভালোভাবেই প্রস্তুতি নিয়েছি। এখন সঠিক দিনে সঠিক সময়ে সঠিক কাজটা করতে পারলে পদক নিয়ে দেশে ফিরতে পারবো।’ ১৯৯০সালে অনুষ্ঠিত অকল্যান্ড কমনওয়েলথ গেমসে এয়ার পিস্তল থেকে বাংলাদেশকে প্রথমবারের মত স্বর্ণপদক এনে দিয়েছিলেন আতিকুর রহমান ও আবদুস সাত্তার নিনি। এয়ার পিস্তল থেকে স্বর্ণপদক জিতেছিলেন তারা। এটিই এই গেমসে বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম পদক। এরই ধারাবাহিকতায় ২০০২ সালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে অনুষ্ঠিত গেমসে এয়ার রাইফেল ইভেন্ট থেকে লাল সবুজদের শিবিরে স্বর্ণপদক এনে দেন আসিফ হোসেন। ২০০৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে অনুষ্ঠিত গেমসে বাংলাদেশ দলগত ভাবে রৌপ্য এবং ২০১০ সালে ভারতের নয়াদিল্লিতে অনুষ্ঠিত গেমসে দলগত ব্রোঞ্জ পদক জয় করে। সর্বশেষ ২০১৪ সালে স্কটল্যান্ডের গ্লাসগো নগরীতে অনুষ্ঠিত কমনওয়েলথ গেমসে এই শ্যুটিং থেকেই বাংলাদেশকে রৌপ্যপদক এনে দেন আবদুল্লাহ হেল বাকী। যাকে ঘিরেই এবারো পদক প্রত্যাশার স্বপ্ন বুনছে বাংলাদেশ। যে কারণে তাদের পদক প্রাপ্তির বিপরীতে আগাম অর্থ পুরস্কার প্রদানের ঘোষনা করেছে শ্যুটিং ফেডারেশন ও বিওএ।

E-mail : info@dpcnews24.com / dpcnews24@gmail.com

EDITOR & CEO : KAZI FARID AHMED (Genarel Secratry - DHAKA PRESS CLUB)

Search

Back to Top