• চ্যাম্পিয়ন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ

    বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বসুন্ধরা গ্রুপ স্বাধীনতা কাপ কাবাডি ২০১৭ এর চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে। আজ মিরপুর হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে প্রতিযোগিতার তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ফাইনাল ম্যাচে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বাংলাদেশ নৌবাহিনীকে মাত্র ২ পয়েন্টের ব্যবধানে (২৯-২৭) পরাজিত করে।  চ্যাম্পিয়নরা প্রথমার্ধে ১৭-১২ পয়েন্টে এগিয়ে ছিল। বিজিবির টিপু সুলতান ম্যান অব দা ফাইনাল ও ম্যান অব দা টুর্নামেন্ট নির্বাচিত হন। সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ড. শ্রী বীরেন শিকদার, মাননীয় প্রতিমন্ত্রী, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন মোঃ সাইদুল ইসলাম, ভারপ্রাপ্ত সচিব, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক জনাব হাবিবুর রহমান বিপিএম (বার), পিপিএম, অতিরিক্ত ডিআইজি (সংস্থাপন), বাংলাদেশ পুলিশ, বাংলাদেশে সুইডেনের মাননীয় রাষ্ট্রদূত মিঃ জন ফ্রিজেল (Mr. John Frisell), বাংলাদেশে উত্তর কোরিয়ার মাননীয় রাষ্ট্রদূত মিঃ রি সং হিয়ন (Mr. Ri Song Hyon) এবং বসুন্ধরা গ্রুপের উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অবঃ) মোহাম্মদ মাহবুব হায়দার খান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সম্মানিত সভাপতি জনাব এ কে এম শহীদুল হক বিপিএম, পিপিএম, ইন্সপেক্টর জেনারেল, বাংলাদেশ পুলিশ। প্রাইজ মানিঃ চ্যাম্পিয়ন দলঃ ২ লক্ষ টাকা রানার আপ দলঃ ১ লক্ষ টাকা অপর দুই সেমিফাইনালিস্টঃ প্রত্যেকে ৫০ হাজার টাকা করে   ২৩ এপ্রিল ২০১৭ তারিখে শুরু হওয়া ৫দিন ব্যাপী এই প্রতিযোগিতায় দুই গ্রুপে ১০টি দল অংশগ্রহণ করে। টুর্নামেন্টের ইভেন্ট ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পালন করেছে এ্যাডটাচ।

  • সেমিফাইনাল নিশ্চিত করল নৌবাহিনী, বিজিবি, সেনাবাহিনী এবং পুলিশ

    বসুন্ধরা প্রেজেন্টস স্বাধীনতা কাপ কাবাডি ২০১৭ এ বাংলাদেশ নৌবাহিনী, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এবং বাংলাদেশ পুলিশ সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে। আজ মিরপুর হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বের ৩য় দিনে ৭টি খেলায় সেমিফাইনালিস্ট ৪টি দল নির্ধারিত হয়। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ৭৪ পয়েন্টের বিশাল ব্যবধানে দিনাজপুর জেলাকে পরাজিত করে প্রতিযোগিতার প্রথম দল হিসেবে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে। সেনাবাহিনীর ১০৬ পয়েন্টের জবাবে দিনাজপুর ৩২ পয়েন্ট স্কোর করে। বাংলাদেশ নৌ-বাহিনী ২৫ পয়েন্টের ব্যবধানে বরিশাল জেলাকে পরাজিত করে ক গ্রুপের গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে। নৌবাহিনীর ৪৯ পয়েন্টের জবাবে বরিশাল জেলা ২৪ পয়েন্ট স্কোর করে। পরের ম্যাচে বাংলাদেশ জেল বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিসকে ৩৭ পয়েন্টের ব্যবধানে পরাজিত করে। বাংলাদেশ জেলের ৪৮ পয়েন্টের বিপরীতে ফায়ার সার্ভিস ১১ পয়েন্ট স্কোর করে। খেলাশেষে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ জেল উভয়ের ৫ পয়েন্ট থাকা সত্ত্বেও স্কোর ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় “ক” গ্রুপের দ্বিতীয় দল হিসেবে সেমিফাইনালে প্রবেশ করে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ। বাংলাদেশ পুলিশ ও বাংলাদেশ বিমান বাহিনী ম্যাচে পুলিশ ৭-২ ব্যবধানে জয়লাভ করে। ম্যাচের প্রথমার্ধের ৯ মিনিটের সময় রেফারির একটি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে বিমান বাহিনী খেলতে অস্বীকৃতি জানায়। বাইলজ অনুসারে রেফারি ১০ মিনিট অপেক্ষা করার পরেও বিমান বাহিনী ম্যাচে না ফেরায় রেফারি শেষ বাঁশি বাজিয়ে বাংলাদেশ পুলিশকে জয়ী ঘোষণা করেন। এ সময় পুলিশ ৭-২ ব্যবধানে এগিয়ে ছিল। দিনের অন্যান্য খেলায় বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস বরিশাল জেলার মুখোমুখি হয়ে ৩৯-২৯ পয়েন্টে জয়লাভ করে। পরের ম্যাচে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী ১৯ পয়েন্টের ব্যবধানে (৪৬-২৭) মৌলভীবাজার জেলার বিরুদ্ধে জয় লাভ করে।   ফলাফলঃ ম্যাচ নং দল ফলাফল ১ বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস (৩৯) বনাম বরিশাল জেলা (২৯) বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস ১০ পয়েন্টের ব্যবধানে জয়ী ২ বাংলাদেশ সেনাবাহিনী (১০৬) বনাম দিনাজপুর জেলা (৩২) বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ৭৪ পয়েন্টের ব্যবধানে জয়ী ৩ মৌলভীবাজার জেলা (২৭) বনাম বাংলাদেশ বিমান বাহিনী (৪৬) বাংলাদেশ বিমান ১৯ পয়েন্টের ব্যবধানে জয়ী ৪ বাংলাদেশ নৌবাহিনী (৪৯) বনাম বরিশাল জেলা (২৪) বাংলাদেশ নৌবাহিনী ২৫ পয়েন্টের ব্যবধানে জয়ী ৫ বাংলাদেশ জেল (৪৮) বনাম বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস (১১) বাংলাদেশ জেল ৩৭ পয়েন্টের ব্যবধানে জয়ী ৬ বাংলাদেশ পুলিশ (৭) বনাম বাংলাদেশ বিমান বাহিনী (২) বাংলাদেশ পুলিশ ৫ পয়েন্টের ব্যবধানে জয়ী ৭ দিনাজপুর জেলা () বনাম মৌলভীবাজার জেলা () পয়েন্টের ব্যবধানে জয়ী               পয়েন্ট টেবিলঃ কগ্রুপ বিজিবি নৌবাহিনী বাঃজেল ফায়ারসার্ভিস বরিশাল পয়েন্ট বিজিবি - ২৯-৩৩ ২৪-২৪ ৫০-১৬ ৯৪-১৭ ২+০+১+২=৫ নৌবাহিনী ৩৩-২৯ - ৩৬-১৯ ৫৭-৩০ ৪৯-২৪ ২+২+২+২=৮ বাঃজেল ২৪-২৪ ১৯-৩৬ - ৪৮-১১ ৪৯-১৩ ১+০+২+২=৫ ফায়ারসার্ভিস ১৬-৫০ ৩০-৫৭ ১১-৪৮ - ৩৯-২৯ ০+০+২+০=২ বরিশালজেলা ১৭-৯৪ ২৪-৪৯ ১৩-৪৯ ২৯-৩৯ - ০+০+০+০=০       খগ্রুপ সেনাবাহিনী বাঃপুলিশ মৌলভীবাজার দিনাজপুর বিমানবাহিনী পয়েন্ট সেনাবাহিনী - ২৬-২৯ ৬৯-২৬ ১০৬-৩২ ৩৫-২৭ ০+২+২+২=৬ বাঃপুলিশ ২৯-২৬ - ২৮-১৬ ৪৪-২২ ৭-২ ২+২+২+২=৮ মৌলভীবাজার ২৬-৬৯ ১৬-২৮ - ** ২৭-৪৬ ০+০+০+ দিনাজপুর ৩২-১০৬ ২২-৪৪ ** - ১৫-৭৪ ০+০+০+ বিমানবাহিনী ২৭-৩৫ ২-৭ ৪৬-২৭ ৭৪-১৫ - ০+২+২+০=৪     *ক গ্রুপ থেকে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ নৌবাহিনী ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ।   *খ গ্রুপ থেকে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ পুলিশ ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। **প্রেস রিলিজ লেখা পর্যন্ত মৌলভীবাজার ও দিনাজপুরের খেলা চলছিল।     আগামীকাল বিকাল ৫:০০ টা থেকে ১ম সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ নৌবাহিনী ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, বিকাল ৬:১০ এ ২য় সেমিফাইনাল খেলবে বাংলাদেশ পুলিশ ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ। দুটি খেলাই খেলা ইউটিউব ও ফেসবুকে সরাসরি সম্প্রচারিত হবে।

  • বসুন্ধরা প্রেজেন্টস স্বাধীনতা কাপ কাবাডি ২০১৭ শুরু ২৩ এপ্রিল

    বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের আয়োজনে ও বসুন্ধরা গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় স্বাধীনতা কাপ কাবাডি ২০১৭ এর চূড়ান্ত পর্ব আগামী ২৩ এপ্রিল ২০১৭ তারিখে মিরপুর হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দি ইনডোর স্টেডিয়ামে শুরু হতে যাচ্ছে।আজ ২০ এপ্রিল, ২০১৭, বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন মিলনায়তনে এ সংক্রান্ত এক সংবাদ সম্মেলনে স্পন্সর হিসেবে বাংলাদেশের নের্তৃস্থানীয় শিল্প প্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপের নাম ঘোষণা করা হয় ও টুর্নামেন্টের লোগো উন্মোচন করা হয় । সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের মাননীয় সভাপতি ও ইন্সপেক্টর জেনারেল, বাংলাদেশ পুলিশ, জনাব একেএম শহীদুল হক, বিপিএম, পিপিএম ও বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ও অতিরিক্ত ডিআইজি জনাব হাবিবুর রহমান ও বসুন্ধরা গ্রুপের উপদেষ্টা মেজর জেনারেল মো: মাহবুব হায়দার খান (অব:)। বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের মাননীয় সভাপতি ও ইন্সপেক্টর জেনারেল, বাংলাদেশ পুলিশ, জনাব একেএম শহীদুল হক, বিপিএম, পিপিএম তাঁর বক্তব্যে বলেন, “এ প্রতিযোগিতার মূল লক্ষ্য হচ্ছে খেলোয়াড় বাছাই করা, যেন পরবর্তীতে তাঁদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে কাবাডিকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে একটি মর্যাদাপূর্ণ অবস্থানে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়।” এই টুর্নামেন্টের ইভেন্ট ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পালন করছে এ্যাডটাচ। পাঁচ দিনব্যাপী এই প্রতিযোগিতায় দুই গ্রুপে মোট ১০টি দল অংশগ্রহণ করবে। গ্রুপ এ: বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি), বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস, জেলা পর্যায়ে চ্যাম্পিয়ন ও জেলা পর্যায়ে ৩য় দল। গ্রুপ বি: বাংলাদেশ পুলিশ, বাংলাদেশ নৌবাহিনী, বাংলাদেশ বিমান বাহিনী, বাংলাদেশ জেল এবং জেলা পর্যায়ে রানার আপ দল। দুই সেমিফাইনাল ও ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে যথাক্রমে ২৬ ও ২৭ এপ্রিল। চুড়ান্ত পর্বের সবক’টি খেলা মিরপুর হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দি ইনডোর স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে ।

  • কাবাডি ফেডারেশন মৌলভীবাজার জেলা জোন চ্যাম্পিয়ন

    বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস কাবাডি প্রতিযোগিতা ২০১৭ জোন চ্যাম্পিয়ন এর ফাইনাল খেলা চূড়ান্ত পর্বের (১ম ধাপ ) আজ কাবাডি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। মৌলভীবাজার জেলা ৪৫-১৮ পয়েন্টে দিনাজপুর জেলাকে পরাজিত করে। পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হয়ে চূড়ান্ত পর্বের খেলার যোগ্যতা অর্জন করে। ৩য় স্থান নির্ধারনী খেলায় বরিশাল জেলা ৩৭-৩৬ পয়েন্টে খুলনা জেলাকে পরাজিত করে ৩য় স্থান লাভ করে এবং চূড়ান্ত পর্বের খেলার যোগ্যতা অর্জন করে। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ী ও বিজিত দলের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন জনাব অশোক কুমার বিশ্বাস (যুগ্ম-সচিব) সচিব জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক জনাব হাবিবুর রহমান বিপিএম(বার)পিপিএম, অতিরিক্ত ডিআইজি ( সংস্থাপন ), বাংলাদেশ পুলিশ । এছাড়া আরোও উপস্থিত ছিলেন টুর্ণামেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান ও ফেডারেশনের সহ-সভাপতি জনাব আমির হোসেন পাটোয়ারী এবং সদস্য-সচিব জনাব আব্দুল জলিলসহ অন্যান্য কর্মকর্তাগন। বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক উপস্থিত সকলকে জানান এবং মহান স্বাধীনতা দিবস কাবাডি প্রতিযোগিতার তাৎপর্য সম্পর্কে বক্তব্য রাখেন । মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ এডিবল অয়েল লিধ: এবং আমানতশাহ লুঙ্গি পৃষ্ঠপোষকতা করায় তাদেরকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

  • মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস কাবাডি প্রতিযোগিতার খেলা শুরু

    বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস কাবাডি প্রতিযোগিতা ২০১৭ এর ৮ টি জোনের চ্যাম্পিয়ন দলের খেলা আজ থেকে কাবাডি স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে। সকাল ৮:০০ টায় প্রতিযোগিতার শুভ উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক জনাব হাবিবুর রহমান, বিপিএম(বার)পিপিএম, অতিরিক্ত ডিআইজি, বাংলাদেশ পুলিশ। তিনি মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস কাবাডি প্রতিযোগিতার গুরুত্ব ও তাৎপর্য সম্পর্কে বিস্তারিত বর্ণনা দেন এবং মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ এডিবল অয়েল লি: এবং আমানতশাহ্ লুঙ্গি এই প্রতিযোগিতায় পৃষ্ঠপোষকতা করায় তাদেরকে প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। সেই সঙ্গে তিনি বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার উপস্থিত সাংবাদিকদেরও ধন্যবাদ জানান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সহ-সভাপতি এবং টুর্ণামেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান জনাব আমির হোসেন পাটোয়ারী। এছাড়া ফেডারেশনের অন্যান্য কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। দিনের ১ম খেলায় দিনাজপুর জেলা ৪৭-৩২ পয়েন্টে চট্টগ্রাম জেলাকে পরাজিত করে, ২য় খেলায় বরিশাল জেলা ৩৯-৩৬ পয়েন্টে মাগুরা জেলাকে পরাজিত করে, ৩য় খেলায় মৌলভীবাজার জেলা ৪১-২৪ পয়েন্টে রাজশাহী জেলাকে পরাজিত করে, ৪র্থ খেলায় খুলনা জেলা ৫৩-২৯ পয়েন্টে ময়মনসিংহ জেলাকে পরাজিত করে, ৫ম খেলায় দিনাজপুর জেলা ৫৯-২৫ পয়েন্টে মাগুরা জেলাকে পরাজিত করে।

  • আগামীকাল থেকে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস কাবাডি প্রতিযোগিতা শুরু

    বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস কাবাডি প্রতিযোগিতা ২০১৭ এর ৮ টি জোনের চ্যাম্পিয়ন দলের খেলা আগামী ১৮-২০ এপ্রিল পর্যন্ত ঢাকা কাবাডি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে। আগামীকাল সকাল ৮:০০ টায় প্রতিযোগিতার শুভ উদ্বোধন কবরেন বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক জনাব হাবিবুর রহমান, বিপিএম(বার),পিপিএম, অতিরিক্ত ডিআইজি, বাংলাদেশ পুলিশ। উক্ত প্রতিযোগিতায় সকল পত্রিকার ক্রীড়া সাংবাদিক প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার ক্রীড়া সাংবাদিকদের উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ জানানো যাচ্ছে।  

  • বাছাইকৃত প্রতভিাবান খলেোয়াড়দরে সমাপনী ও সার্টিফিকেট প্রদান

    জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের অর্থায়নে ও বাংলাদেশ হ্যান্ডবল ফেডারেশনের সার্বিক ব্যব¯হাপনায় ”তৃণমূল র্পযায় থকেে বাছাইকৃত প্রতভিাবান খলেোয়াড়দরে (বালক/বালিকা) নিয়ে ২৯টি বালক ও ২৮টি বালিকা জেলা নিয়ে আমরা প্রথমে শুরু করি। মোট বালক ও বালিকা ৫৩৭০ জন। সেখান থেকে প্রতিটি জেলা হতে ৭ জন বালক ও ৭ জন বালিকা নিয়ে জেলা পর্যায়ে ৪টি বালক ও ৪ টি বালিকা জোন করা হয়। প্রতি জোন থেকে ১৪ জন বালক ও ১৪ জন বালিকা নিয়ে চুড়ান্ত পর্ব শুরু হয়। সেখান থেকে ২২ জন বালক ও ২২ জন বালিকা নির্বাচিত করা হয়।চুড়ান্ত পর্যায়ের প্রশিক্ষন এর সমাপনী ও সার্টিফিকেট প্রদান” উপলক্ষ্যে গত ১১ এপ্রিল ২০১৭ সন্ধ্যা ৭.৩০ মি: শহীদ এম মনসুর আলী জাতীয় হ্যন্ডবল স্টেডিয়ামে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে খেলোয়াড়দের মাঝে সনদপত্র প্রদান করেন বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন মহাসচিব সৈয়দ সাহেদ রেজা। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথী হিসেবে ছিলেন জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব জনাব অশোক কুমার বিশ্বাস ও অলিম্পিক এসোসিয়েশনের উর্ধতন  কর্মকর্তা এবং বাংলাদেশ হ্যান্ডবল ফেডারেশনের কর্মকর্তা সহ বিশিষ্ঠ ক্রীড়া সংগঠকগন উপস্থিত ছিলেন।  অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ হ্যান্ডবল ফেডারেশনের সম্মানিত সভাপতি ও বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন এর নবনির্বাচিত নির্বাহী সদস্য জনাব এ. কে. এম নূরুল ফজল বুলবুল।

  • বাংলাদেশ হ্যান্ডবল ফেডারেশনের চুড়ান্ত পর্যায়ের প্রশিক্ষন এর সমাপনী ও সার্টিফিকেট প্রদান

    তৃণমূল র্পযায় থকেে বাছাইকৃত প্রতভিাবান খলেোয়াড়দরে (বালক/বালিকা) চুড়ান্ত পর্যায়ের প্রশিক্ষন এর সমাপনী ও সার্টিফিকেট প্রদান অনুষ্ঠান।জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের অর্থায়নে ও বাংলাদেশ হ্যান্ডবল ফেডারেশনের সার্বিক ব্যব¯হাপনায় ”তৃণমূল র্পযায় থকেে বাছাইকৃত প্রতভিাবান খলেোয়াড়দরে (বালক/বালিকা) চুড়ান্ত পর্যায়ের প্রশিক্ষন এর সমাপনী ও সার্টিফিকেট প্রদান” উপলক্ষ্যে আগামী ১১ এপ্রিল ২০১৭ সন্ধ্যা ৭.৩০ মি: শহীদ এম মনসুর আলী জাতীয় হ্যন্ডবল স্টেডিয়ামে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার এর যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রনালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী ড. শ্রী বীরেন শিকদার, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে খেলোয়াড়দের মাঝে সার্টিফিকেট প্রদান করবেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন এর ২য় বার নির্বাচিত মহাসচিব সৈয়দ সাহেদ রেজা । অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন বাংলাদেশ হ্যান্ডবল ফেডারেশনের সম্মানিত সভাপতি ও বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন এর নবনির্বাচিত নির্বাহী সদস্য জনাব এ. কে. এম নূরুল ফজল বুলবুল।

  • জঙ্গীবাদ এবং মাদক মুক্ত সমাজ বিনির্মাণে খেলাধুলার বিকল্প নেই

    চন্দনাইশ সাতবাড়িয়াস্হ আরিফ শাহবাড়ী যুব ঐক্য পরিষদ আয়োজিত ক্রিকেট টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা গত ৭এপ্রিল বিকেল ৫টায় স্হানীয় মাঠে সমাজসেবক মাষ্টার মোঃ আজম খানের সভাপতিত্বে অনুষ্টিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন, রুপালী ব্যাংকের পরিচালক, চট্রগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি, দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগ নেতা সাংবাদিক আবু সুফিয়ান। উদ্বোধক হিসেবে উপস্হিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের উপ কৃষি বিষয়ক সম্পাক মীর মোঃ মহিউদ্দিন, চট্রগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সদস্য বোরহান উদ্দিন গিফারীর পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন আওয়ামীলীগ নেতা মোরশেদ আলম, যুবলীগ নেতা ফোরক আহমদ, ছাত্রলীগ নেতা আবু হানিফ, মোঃ তারেক, মোঃ জাহেদ, মোঃ রায়হান, মোঃ জয়নাল, মোঃ আরমান প্রমুখ। উক্ত খেলায় কাঞ্চন নগর ইয়ং স্টার সোসাইটি ৬ রানে শেবন্দি ক্রিকেট একাদশকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হয়। উক্ত খেলায় ম্যান অব দ্যা ম্যাচ হয় কাঞ্চন নগর ইয়ং সোসাইটির মোঃ রফিক।প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, বর্তমান ক্রিকেট বিশ্বে আলোচিত ও সম্ভাবনাময় ক্রিকেট দল হিসেবে ইতিমধ্যে নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন, তিনি আরো বলেন, যুব সমাজের অবক্ষয়রোদে খেলাধুলার কোন বিকল্প নেই। জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাস মুক্ত বাংলাদেশ বিনির্মাণে খেলাধুলার চর্চা বাড়াতে হবে। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বিনির্মাণে ছাত্র যুবদের অগ্রণী ভুমিকা রাখতে হবে। সভা শেষে প্রধান অতিথি বিজয়ীদের মাঝে চ্যাম্পিয়ন ট্রপি এবং বিজিত দলের মাঝে রানার্স আপ ট্রপি বিতরণ করেন।

  • অলিম্পিক ভবন প্রাঙ্গন হতে একটি শোভাযাত্রার আয়োজন

    বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন কর্তৃক শোভাযাত্রা, পতাকা উত্তোলন এবং সেমিনার আয়োজনের কর্মসূচী বাস্তবায়নের মধ্যে দিয়ে দিন ব্যাপী দিবসটি উদযাপন করা হয়। দিবসটির ১ম কর্মসূচী হিসাবে জনাব গ্রুপ ক্যাপ্ট. (অবঃ) এম রফিকুল ইসলাম, বিওএর মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) ফখরুদ্দিন হায়দার, বিভিন্ন ফেডারেশন ও এসোসিয়েশনের খেলোয়াড়, প্রশিক্ষক ও কর্মকর্তা বৃন্দ, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষক-শিক্ষিকা সহ ক্রীড়া সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ব্যক্তিবর্গের অংশগ্রহনে অলিম্পিক ভবন প্রাঙ্গন হতে একটি শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়। শোভাযাত্রাটি উদ্বোধন করেন বিওএ’র সহ-সভাপতি এবং  আয়োজনের জন্য গঠিত কমিটির আহবায়ক জনাব মোঃ মিজানুর রহমান মানু। শোভাযাত্রাটি বিওএ ভবন হতে শুরু হয়ে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম প্রাঙ্গনে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় কর্তৃক আয়োজিত জাতীয় ক্রীড়া দিবসের অনুষ্ঠানে যোগদান করে পুনরায় বিওএ’র ভবনে এসে শেষ হয়। শোভাযাত্রা শেষে বিওএ ভবন প্রাঙ্গনে পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে আইওসির পতাকা উত্তোলন করেন জনাব মোহাম্মদ আব্দুল কাদির, জাতিসংঘের পতাকা উত্তোলন করেন গ্রুপ ক্যাপ্ট. (অবঃ) এম রফিকুল ইসলাম, বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন জনাব মোঃ মিজানুর রহমান মানু, অলিম্পিক কাউন্সিল অব এশিয়ার পতাকা উত্তোলন করেন জনাব বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের সহ-সভাপতি জনাব আমির হোসেন পাটোয়ারী এবং বিওএ’র পতাকা উত্তোলন করেন বিওএ’র মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) ফখরুদ্দিন হায়দার। এছাড়াও বিকাল ০৪:০০ ঘটিকায় দিবসটির গুরুত্ব ও তাৎপর্য তুলে ধরে অলিম্পিক ভবনের ডাচ্ বাংলা ব্যাংক অডিটোরিয়ামে একটি সেমিনার আয়োজন করা হয়। উক্ত সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী এ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান, এমপি, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিওএ’র মাননীয় মহাসচিব জনাব সৈয়দ শাহেদ রেজা এবং অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন বিওএ’র সহ সভাপতি  আয়োজনের জন্য গঠিত কমিটির আহবায়ক জনাব মোঃ মিজানুর রহমান মানু। সেমিনারের প্রারম্ভিক আলোচনা পাঠ করেন জাতীয় কোর্স পরিচালক জনাব মোঃ মাহফুজুর রহমান সিদ্দিকী।

  • মহান স্বাধীনতা দিবস জাতীয় কাবাডি ২০১৭ জোনের খেলার ফলাফল

    বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় এবং বাংলাদেশ এডিবঅয়েল লি: (বিইওএল) এবং আমানতশাহ লুঙ্গি এর পৃষ্ঠপোষকতায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস কাবাডি প্রতিযোগিতা ২০১৭ এর যে সকল জোনে ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে । তার ফলাফল নিম্নে দেয়া হলো।পদ্মা জোন: (রাজশাহী )পদ্মা জোনের ফাইনাল খেলা আজ অনুষ্ঠিত হয়। রাজশাহী জেলা  ৩৭-২৩ পয়েন্টে বগুড়া জেলাকে পরাজিত করে জোন চ্যাম্পিয়ন হয় এবং চূড়ান্ত পর্বের খেলার যোগ্যতা অর্জন করে। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ী ও বিজিত দলের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন রাজশাহী বিভাগের বিভাগীয়  কমিশনার জনাব নূর-উর-রহমান ।  বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী জেলার জেলা প্রশাসক জনাব কাজী আশরাফ উদ্দিন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী  জেলার পুলিশ সুপার জনাব্ মোয়াজ্জেম হোসেন ভূইয়া ।সুরমা জোন: ( হবিগঞ্জ )    মৌলভীবাজার জেলা ১৮-০৮ পয়েন্টে কুমিল¬া জেলাকে পরাজিত করে জোন চ্যাম্পিয়ন হয় এবং চূড়ান্ত পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে। প্রধান অতিািথ হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ী ও বিজিত দলের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক জনাব শফিউল আলম।

  • মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস কাবাডি প্রতিযোগিতা শুরু

    বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় এবং বাংলাদেশ এডিবঅয়েল লি: (বিইওএল) এবং আমানতশাহলুঙ্গি এর পৃষ্ঠপোষকতায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস কাবাডি প্রতিযোগিতা ২০১৭ এর ৪(চার) টি জোনের খেলা আজ থেকে শুরু হয়। প্রতিটি জোনে ৮ টি জেলা দল প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করছে।    নিম্নে খেলার ফলাফল দেয়া হলো:মধুমতি জোন : ভেন্যু ( নারায়নগঞ্জ) ঢাকা, মুন্সীগঞ্জ,ফরিদপুর গোপালগঞ্জ,শরিয়তপুর,মাগুরা  ও রাজবাড়ী জেলা১ম খেলায় রাজবাড়ী জেলা ২৪-২২ পয়েন্টে ঢাকা  জেলাকে পরাজিত করে, ২য় খেলায় নারায়নগঞ্জ জেলা ৩০-২১ পয়েন্টে ফরিদপুর জেলাকে পরাজিত করে, ৩য় খেলায় মাগুরা জেলা  ৩৯-২০ পয়েন্টে মুন্সীগঞ্জ জেলাকে পরাজিত করে, ৪র্থ খেলায় গোপালগঞ্জ জেলা ৩০-১০ পয়েন্টে শরিয়তপুর জেলাকে পরাজিত করে। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রতিযোগিতার শুভ উদ্বোধন করেন নারায়নগঞ্জ জেলার পুলিশ সুপার জনাব মঈনুল হক, বিপিএম,পিপিএম ।কির্তনখোলা জোন: ভেন্যু (বরিশাল)বরগুনা,পিরোজপুর, পটুয়াখালী, ভোলা,ঝালকাঠি,মাদারীপুর ও বগেরহাট ১ম খেলায় বরিশাল জেলা ৫৬-৩৬ পয়েন্টে ভোলা জেলাকে পরাজিত করে, ২য় খেলায় মাদারীপুর জেলা ৬৮-১৪ পয়েন্টে  পটুয়াখালী  জেলাকে পরাজিত করে,৩য় খেলায় বাগেরহাট জেলা  ৫২-১২ পয়েন্টে বরগুনা  জেলাকে পরাজিত করে, ৪র্থ খেলায় ঝালকাঠি জেলা ৪১-৩৬ পয়েন্টে পিরোজপুর  জেলাকে পরাজিত করে,৫ম খেলায় বরিশাল জেলা  ৫৯-০৫ পয়েন্টে পটুয়াখালী  জেলাকে পরাজিত করে। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রতিযোগিতার শুভ উদ্বোধন করেন বরিশাল রেঞ্জের বিভাগীয় কমিশনার  ডিআইজি জনাব শেখ মো: মারুফ হাসান, পিবিএম,পিপিএম। তিস্তা জোন(ভেন্যু: দিনাজপুর) রংপুর,গাইবান্ধা,লালমনিরহাট,কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, ঠাকুরগাঁও ও পঞ্চগড় জেলা ১ম খেলায়  রংপুর জেলা ৪২ -২৩ পয়েন্টে ঠাকুরগাঁও জেলাকে পরাজিত করে,২য় খেলায়  লালমনিরহাট  জেলা ৩৪-৩০ পয়েন্টে  নীলফামারী জেলাকে পরাজিত করে,৩য় খেলায় দিনাজপুর জেলা ৪৯-২৯ পয়েন্টে  গাইবান্ধা জেলাকে পরাজিত করে, ৪র্থ খেলায় পঞ্চগড়  জেলা  ৪৬-৩৫ পয়েন্টে কুড়িগ্রাম জেলাকে পরাজিত করে। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রতিযোগিতার শুভ উদ্বোধন করেন  রংপুর রেঞ্জের বিভাগীয় কমিশিনার ডিআইজি  জনাব খন্দকার গোলাম ফারুক,বিপিএম পিপিএম । বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাব মো: খাযরুল আলম জেলা প্রশাসক, দিনাজপুর। ব্রক্ষপুত্র জোন : ভেন্যু(ময়মনসিংহ) টাঙ্গাইল,জামালপুর,শেরপুর,গাজীপুর, কিশোরগঞ্জ,নেত্রকোনা ও  মানিকগঞ্জ জেলা ।    ময়মনসিংহ জেলয় ব্রক্ষপুত্র জোনের খেলা বৃষ্টির জন্য রাত ফ্লাট লাইটের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হবে।

  • সেলিম আল-মাহমুদ ওয়ালটন বিএবিবিএফ মিঃ ঢাকা, মাস্টার ঢাকা শরীরগঠন প্রতিযোগিতা-২০১৭

    বাংলাদেশ শরীগঠন ফেডারেশনের উদ্যোগে ও সাউথ পয়েন্ট ফিটনেস জোনের ব্যবস্থাপনায় তিনদিন ব্যাপি সেলিম আল-মাহমুদ ওয়ালটন বিএবিবিএফ মিঃ ঢাকা, মাস্টার ঢাকা শরীরগঠন প্রতিযোগিতা-২০১৭ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও প্রিজাজিং পর্ব আজ (২৭ মার্চ) জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ (এনএসসি) টাওয়ার অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন, বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন বিশিষ্ট শিল্পপতি হাজী মোঃ সালাউদ্দিন, ওয়ালটন গ্্রুপের হেড অব ডিপার্টমেন্ট (স্পোর্টস এন্ড ওয়েলফেয়ার) এফ.এম.ইকবাল বিন আনোয়ার ডন, দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৩৮নং ওয়ার্ডের সম্মানীত কাউন্সিলর আবু আহমেদ মান্নাফি, দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৪১নং ওয়ার্ডের সম্মানীত কাউন্সিলর আলহাজ্ব সারোয়ার হাসান আলো, এছাড়াও সেখানে উপস্থিত ছিলেন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মিঃ বাংলাদেশ জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম, ফেডারেশনের অন্যান্য কর্মকর্তারা এবং প্রতিযোগিতার সাংগঠনিক সদস্যবৃন্দ।প্রিজাজিং পর্বে প্রতিটি ওজন শ্রেণি হতে বাছাইকৃত ৬ জন করে প্রতিযোগীদেরকে নিয়ে আগামীকাল একই ভেন্যুতে প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত হবে।

  • নাথান লিওনের তাণ্ডবে ১৮৯ রানে অলআউট ভারত

    আবারও ব্যাটিং বিপর্যয় ভারতের। তবে এবারের ঘাতকের নাম এবার নাথান লিওন। অস্ট্রেলিয়ান এই স্পিনারের শিকার ৮ উইকেট। তার ঘূর্ণি জাদুতে বেঙ্গালুরু টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১৮৯ রানে অলআউট হয়ে গেছে স্বাগতিকরা। ঘুরে দাঁড়ানোর কথা জোর গলায় বলেছিলেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তার কথার সুর ধরে বলা চলে পুনে টেস্টের লজ্জা কাটিয়ে উঠার মিশন হিসেবে ভারত নেমেছিল বেঙ্গালুরুর দ্বিতীয় টেস্টে। উঠে দাঁড়াবে কী, উল্টো ব্যর্থতার অধ্যায় আরও দীর্ঘ করল স্বাগতিকরা! প্রথম দিনের চা বিরতির পর বৃষ্টির মতো উইকেট পড়েছে ভারতের। প্রথম টেস্টে ভারতকে বিধ্বস্ত করেছিলেন স্টিভ ও’কেফি। এবার তাকে পাশে ঠেলে দিয়ে নায়ক হয়ে উঠলেন লিওন। ডানহাতি এই স্পিনার একাই শেষ করে দিয়েছেন স্বাগতিকদের। অভিনব মুকুন্দ ও করুণ নায়ারের উইকেট দুটি বাদ দিয়ে ভারতের বাকি উইকেটগুলো তার দখলেই। ৫০ রান খরচায় এই স্পিনারের শিকার ৮ উইকেট। লিওনের তাণ্ডবের মুখে ব্যতিক্রম ছিলেন শুধু লোকেশ রাহুল। এই ওপেনারের ইনিংসটা বাদ দিলে কোহলিদের রান তো ১০০-ও হয় না! লোকেশ নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হওয়ার আগে খেলেন ৯০ রানের ইনিংস। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৬ রান করেছেন নায়ার। অস্ট্রেলিয়ার উইকেট উৎসবের শুরুটা করেছিলেন অবশ্য মিচেল স্টার্ক। কাঁধের চোটের কারণে মুলারি বিজয় ছিটকে যাওয়ায় সুযোগ হয়ে যায় মুকুন্দের। যদিও সুযোগটা একেবারেই কাজে লাগাতে পারেননি তিনি। রানের খাতা খোলার আগেই তিনি প্যাভিলিয়নে ফেলেন স্টার্কের বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে। তিন নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে চেতশ্বর পূজারা প্রতিরোধ গড়েছিলেন লোকেশকে নিয়ে। যদিও সেই প্রতিরোধ ভেঙে যায় লাঞ্চের আগ মুহূর্তে, আর পূজারার (১৭) উইকেট দিয়েই শুরু হয় লিওনের অবিশ্বাস্য পথ চলা। এর পর এই স্পিনার একে একে তুলে নিয়েছেন বিরাট কোহলি (১২), আজিঙ্কা রাহানে (১৭), রবিচন্দ্রন অশ্বিন (৭), ঋদ্ধিমান সাহা (১), রবীন্দ্র জাদেজা (৩), লোকেশ রাহুল ও ইশান্ত শর্মার (০) উইকেট।

  • প্রস্ততি ম্যাচে তামিমের সেঞ্চুরি

    টসে জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছে শ্রীলঙ্কা বোর্ড সভাপতি একাদশ। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৫৬ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ৩ উইকেটে ২৫১ রান। তামিম ইকবাল ১৩৩ রান নিয়ে ব্যাটিং করছেন। আউট হয়ে ফিরেছেন সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম। এছাড়া ব্যক্তিগত ৭৬ রান করে রিটায়ারড নেন মুমিনুল হক। সৌম্য ব্যক্তিগত ৯ রানে লাহিরু সামারাকুনের বলে তিনি উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়েছেন রণ চন্দ্রগুপ্তকে। বাংলাদেশ অবশ্য ইমরুল কায়েসকে প্রথম টেস্টের দলে রাখেনি। ফলে শ্রীলঙ্কায় তামিমের ওপেন সঙ্গী সৌম্যই যে থাকছেন, তা মোটামুটি নিশ্চিত।  শ্রীলঙ্কা বোর্ড সভাপতি একাদশকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন দিনেশ চান্ডিমাল।

E-mail : info@dpcnews24.com / dpcnews24@gmail.com

EDITOR & CEO : KAZI FARID AHMED (Genarel Secratry - DHAKA PRESS CLUB)

Search

Back to Top