যারা জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর কারফিউ দিয়ে দেশ চালাতো তাদের মুখেই আজ গণতন্ত্রের বুলি, উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর বলতে গেলে ১০টা বছর এদেশে কারফিউ ছিল সারারাত। তিনি বলেন, সেসময় ‘পাকিস্তানি হানাদার’ বাহিনী বলা যেতো না। বলতে হতো শুধু হানাদার। কিন্তু কারা সে হানাদার? নতুন প্রজন্মকে এসব জানতে দেওয়া হতো না। তখন সব দোষ দিয়ে দেওয়া হয়েছিল আওয়ামী লীগকে। সেসময় ‘জয় বাংলা’ স্লোগানও দেওয়া যেতো না। বুধবার (১৪ ডিসেম্বর) বিকেলে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসের আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। শেখ হাসিনা বলেন, এ জাতির ইতিহাস মুছে ফেলার অপচেষ্টা হয়েছে। একটি জাতি যখন ইতিহাস ভুলে যায়, সে জাতি সামনে এগোবে কী করে! এ সময় তিনি জানান, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর মুক্তিযুদ্ধের ঘাতকদের যারা লালন-পালন করেছেন তাদের বিচার এই বাংলার মাটিতে শুরু করতে হবে। স্বজনহারা বেদনার কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, যে বাঙালির জন্য আমার বাবা এতো কিছু করলেন, সে বাঙালি কী করে তার বুকে গুলি চালালো! সপরিবারে হত্যা করা হলো। আজও বিশেষ বিশেষ দিনগুলোতে ধানমন্ডির দোতালার সিঁড়ির কাছে গিয়ে বসি।

Author

ID NO :

Share Button

Comment Following News

E-mail : info@dpcnews24.com / dpcnews24@gmail.com

EDITOR & CEO : KAZI FARID AHMED (Genarel Secratry - DHAKA PRESS CLUB)

Search

Back to Top