রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের সদস্যদের ওপর পুলিশের নির্যাতনের একটি ভিডিও তদন্ত করবে মিয়ানমারের কর্তৃপক্ষ। আজ সোমবার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়। দেশটির সরকার বলছে, ভিডিওর ঘটনাটি ঘটেছে গত বছরের নভেম্বরে রাখাইন রাজ্যে। পুলিশের এক কর্মকর্তা ভিডিওটি ধারণ করেছেন। ভিডিওতে দেখা যায়, রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের সদস্যদের মারধর করছে পুলিশ। রাখাইনে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিম নিধন চলার অভিযোগ আছে। এই অভিযোগ অস্বীকার করছে মিয়ানমার।

হত্যা, ধর্ষণ, নির্যাতনসহ বর্বর হামলার মুখে রোহিঙ্গারা দেশ ছেড়ে পালাচ্ছে। গত ৯ অক্টোবর থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ৫০ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে ঢুকে পড়েছে।

৯ অক্টোবর সীমান্তচৌকিতে হামলার পর রাখাইনে রোহিঙ্গাদের নির্বিচারে হত্যা, ধর্ষণ, নির্যাতন, বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ শুরু করে মিয়ানমারের সেনা-পুলিশ।

রাষ্ট্রীয় বাহিনীর ভূমিকা প্রশ্নের মুখে পড়ায় রাখাইনের উগ্র তরুণদের নিয়ে বেসরকারি বাহিনী গঠন করে রোহিঙ্গা নিধন চালানোর অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে।

রোহিঙ্গা নির্যাতনের ভিডিও প্রসঙ্গে দেশটির সরকারের ভাষ্য, গত বছরের নভেম্বরে মংডুতে পুলিশের দুই সদস্যের ওপর গুলি ছোড়া হয়। এরপর সেখানে অভিযান চালায় পুলিশ।

ভিডিওটিতে দেখা যায়, পুলিশের সামনে একদল গ্রামবাসী সারি ধরে বসে আছে। বসে থাকা এক ব্যক্তিকে বেদম পেটাচ্ছে এক পুলিশ। একপর্যায়ে পুলিশের অন্য সদস্যরা এসে ওই ব্যক্তির মুখমণ্ডলে লাথি মারতে থাকেন। অন্য গ্রামবাসীও পুলিশি নির্যাতনের শিকার হন।

মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলরের অফিস ইনফরমেশন কমিটি বলেছে, পুলিশের যেসব সদস্য আইন লঙ্ঘন করেছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Author

ID NO :

Share Button

Comment Following News

E-mail : info@dpcnews24.com / dpcnews24@gmail.com

EDITOR & CEO : KAZI FARID AHMED (Genarel Secratry - DHAKA PRESS CLUB)

Search

Back to Top