শুক্রবার, জুন ২৫, ২০২১
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
শুক্রবার, জুন ২৫, ২০২১
Homeবিজ্ঞান ও প্রযুক্তিডিজিটাল বাংলাদেশ রূপকল্প বাস্তবায়িত হওয়ায় ভিন্ন পরিস্থিতিতেও ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করা সম্ভব...

ডিজিটাল বাংলাদেশ রূপকল্প বাস্তবায়িত হওয়ায় ভিন্ন পরিস্থিতিতেও ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করা সম্ভব হয়েছে : পলক

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ রূপকল্প সঠিকভাবে বাস্তবায়িত হওয়ায় ভিন্ন পরিস্থিতিতে যার যার ঘরে ঈদ উদযাপন করলেও আত্মীয়-স্বজন ও বন্ধু-বান্ধব এবং দেশের বাইরের পরিচিতদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করা সম্ভব হয়েছে।
জুনাইদ আহমেদ পলক আজ অনলাইন প্লাটফর্মে আইসিটি বিভাগের উদ্যোগে আয়োজিত মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন বিভাগ, দপ্তর ও সংস্থার কর্মকর্তা কর্মচারীদের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ডিজিটাল প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ানোর কারণেই করোনাভাইরাসের মহামারীতে ধর্মীয় ও সামাজিক অনুষ্ঠানে প্রাণবন্ত ও আনন্দ উপভোগ করা সম্ভব হয়েছে। তা না হলে অর্থনীতি, স্বাস্থ্য, শিক্ষা, প্রশাসন, বাণিজ্যিক কার্যক্রমসহ জীবনে স্থবিরতা নেমে আসত।
সংকট নতুন নেতৃত্ব, দক্ষতা ও যোগ্যতা বিকাশের সুযোগ সৃষ্টি করে বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সংকটকে সম্ভাবনায় রূপান্তর করতে প্রত্যেকে যার যার অবস্থান থেকে কার্যকর পদক্ষেপ নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে।
পলক বলেন, গত বছর করোনাভাইরাসের মহামারী শুরু হওয়ার সময় প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের দিকনির্দেশনায় আইসিটি বিভাগ সকল মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে সমন্বয় করে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বিনোদন, ইন্টার্নেট ও লজিস্টিকসে ৫টি দীর্ঘমেয়াদী বিজনেস কন্টিনিউটি প্লান প্রণয়ন করে। এর মাধ্যমে আমরা গত ১৩ মাস ধরে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে ই-ফাইলিং, ই-কমার্স, শিক্ষা, প্রশাসনিক কার্যক্রম ও ভার্চুয়াল কোর্ট থেকে শুরু করে সবকিছু চলমান রাখতে সক্ষম হয়েছি।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ মধ্যম আয়ের দেশের মর্যাদা লাভ করছে। বিশ্বে বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রদত্ত “রূপকল্প ২০৪১” তথা জ্ঞানভিত্তিক, প্রযুক্তি নির্ভর, উন্নত-সমৃদ্ধ, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলতে সকলকে সম্মিলিতভাবে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।
আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থ প্রতিম দেব ও আইসিটি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আরশাদ হোসেন ।

অন্যান্য সংবাদ
- Advertisment -spot_img
bn Bengali
X
%d bloggers like this: