বুধবার, মে ১৯, ২০২১
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
বুধবার, মে ১৯, ২০২১
Homeক্রাইমনবাবগঞ্জে ইউপি সদস্য কর্তৃক চেয়ারম্যানকে প্রাণ নাসের হুমকি

নবাবগঞ্জে ইউপি সদস্য কর্তৃক চেয়ারম্যানকে প্রাণ নাসের হুমকি

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলায় মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে ইউপি সদস্য কর্তৃক চেয়ারম্যানকে প্রাণ নাসের হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। ইউপি সদস্যর হুমকিতে আতঙ্ক নিয়ে অফিস করছেন ওই ইউনিয়ন পরিষদের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ।
প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে নবাবগঞ্জ উপজেলার বিনোদপুর ইউপি চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেনের নিকট অনৈতিক সুবিধা চেয়ে ব্যার্থ হয়ে, চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেনের নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কুৎসা রটনা করে, একই ইউপির দুই নং ওয়ার্ড সদস্য সোহেল রানা ও ৫ নং ওয়ার্ড সদস্য রেজাউল ইসলাম। এই ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন প্রতিবাদ করায়, চলতি সনের ২৫ এপ্রিল, ওই দুই ইউপি সদস্য সোহেল রানা ও রেজাউল ইসলাম দলবল নিয়ে, ইউপি কার্যালয়ে হামলা করে ও চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেনকে শারিরিক ভাবে লাঞ্চিত করে। এই ঘটনায় চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন বাদি হয়ে নবাবগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করলে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে ওই দুই ইউপি সদস্য সোহেল রানা ও রেজাউল ইসলাম, তারা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে চেয়ারম্যানকে প্রাণ নাসের হুমকি দিয়ে আসছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।
ইউপি চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন বলেন ওই দুই ইউপি সদস্যর বাড়ী ইউপি কার্যালয়ের কোল ঘেষে হওয়ায়, তারা বিভিন্ন সময় ইউপি কার্যালয়ে প্রভাব বিস্তার করে অনৈতিক সুবিধা নেয়ার চেষ্টা করে। তিনি বলেন ওই ইউপি সদস্যদয় এলাকার ডাঙ্গাবাজ বলে পরিচিত, এই কারনে ভয়ে তাদের বিরুদ্ধে কেউ কথা বলতে সাহস পায়না।
ইউপির ৪,৫,ও ৬ নং সংরক্ষিত আসনের ওয়ার্ড সদস্য ফাতেমা বেগম বলেন অত্র ইউপির ভূমি দখলের বিরুদ্ধে কথা বলার কারনে, শত শত মানুষের সামনে তাকে শারিরিক ভাবে লাঞ্চিত করেছে, ইউপি সদস্য রেজাউল ইসলাম ও সোহেল রানা, একই কথা বলেন ইউপি সদস্য সানাউল্যাহ্ সহ অনেকে।
এই বিষয়ে কথা বলার জন্য ইউপি সদস্য সোহেল রানা ও রেজাউল ইসলামের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তার ব্যবহারিত মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়।
এই বিষয়ে জানতে চাইলে নবাবগঞ্জ থানার ওসি অশোক চৌহান সাংবাদিককে বলেন মামলা দায়েরের পর থেকে আসামীদের আটক করার জন্য পুলিশি অভিযান চলছে।

মোঃ আফজাল হোসেন, (দিনাজপুর) প্রতিনিধি

 

অন্যান্য সংবাদ
- Advertisment -spot_img
bn Bengali
X
%d bloggers like this: