রবিবার, মে ৯, ২০২১
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
Homeশিক্ষাঙ্গননাটোরের মেধাবী শিক্ষার্থী অমিকে ক্রেস্ট প্রদান করলো জেলা প্রশাসন

নাটোরের মেধাবী শিক্ষার্থী অমিকে ক্রেস্ট প্রদান করলো জেলা প্রশাসন

ইউরোপের বালিকা গণিত অলিম্পিয়াডে সাফল্য অর্জনকারী নাটোরের মেধাবী শিক্ষার্থী রায়ান বিনতে মোস্তফা অমিকে ক্রেস্ট প্রদান করেছে জেলা প্রশাসন। আজ রোববার সকাল সাড়ে দশটায় জেলা প্রশাসক মোঃ শাহরিয়াজ এ শিক্ষার্থীর হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন। ইউরোপীয়ান গার্লস ম্যাথ অলিম্পিয়াড (ইজিএমও) ২০২১ প্রতিযোগিতায় অমি ব্রোঞ্জ পদক লাভ করে।
এ সময় জেলা প্রশাসক মোঃ শাহরিয়াজ বলেন, করোনাকালীন অলস সময় না কাটিয়ে নিজের মেধাকে শাণিত করেছে অমি, পেয়েছে সাফল্য। এ অর্জন অন্য শিক্ষার্থীদের জন্যে সময়কে কাজে লাগানোর ক্ষেত্রে একটি দৃষ্টান্ত। আন্তর্জাতিক পর্যায়ের একটি প্রতিযোগিতায় অমির এ প্রাপ্তি নাটোরসহ দেশের জন্যে গৌরবের।
আবেগ আপ্লুত রায়ান বিনতে মোস্তফা তাঁর প্রতিক্রিয়ায় জানায়, আমার দায়িত্ব বেড়ে গেল। ভবিষ্যতের প্রতিযোগিতায় আরো ভালো ফলাফলের জন্যে চেষ্টা করবো। পাশাপাশি সফলভাবে পড়াশুনা শেষ করে মানুষের কল্যাণে নিয়োজিত হতে চাই। পাশাপাশি, প্রায় একমাসের বেশি সময় ধরে অনেকগুলো ক্লাস, পরীক্ষার মাধ্যমে এ ইভেন্টটাকে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সুন্দরভাবে সমন্বয় করার জন্যে বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াডের ইপ্সিতা বহ্নি, আহমেদ জাওয়াদ চৌধুরী, সাদ বিন কুদ্দুস ও মাহবুব মজুমদারসহ সকল মেন্টরদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে অমি।
নাটোরের মেধাবী শিক্ষার্থীদের নিয়ে কাজ করা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘আমার হৃদয়ে নাটোর’ এর সংগঠক জুলফিকুল হায়দার বাবু জানান, নাটোরের মানবিক জেলা প্রশাসন মেধাবী শিক্ষার্থী অমিকে মূল্যায়ন করে অন্যদের এ বার্তা দিল যে, মেধাবীদেরদের সাথে আমরা সবাই সবসময় পাশে আছি।
উল্লেখ্য,বিশ্বের সর্ববৃহৎ অলিম্পিয়াড-ইউরোপীয়ান গার্লস্ ম্যাথ অলিম্পিয়াডে (ইজিএমও) বাংলাদেশের অংশগ্রহণ এ প্রথম। গত রোববার ও সোমবার পৃথিবীর ৫৫টি দেশের ২১৩ জন প্রতিযোগী করোনার কারণে অনলাইনে জর্জিয়ার স্বাগতিকতায় অনুষ্ঠিত এ প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণ করে। ২০১২ সাল থেকে ইজিএমও প্রতিবছর অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন দেশে।
ইউরোপিয়ান গার্লস ম্যাথ অলিম্পিয়াড সূত্রে জানা গেছে. প্রথমবার অংশগ্রহণেই বাংলাদেশের প্রতিযোগী ঢাকা ভিকারুননেসা নুন স্কুল এন্ড কলেজের দশম শ্রেণীর ছাত্রী নুজহাত আহমেদ দিশা ১৫ পয়েন্ট পেয়ে অর্জন করেছে রৌপ্যপদক আর নাটোর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এবারের এসএসসি পরীক্ষার্থী রায়ান বিনতে মোস্তফা অমি ৮ পয়েন্ট পেয়ে জয় করেছে একটি ব্রোঞ্জপদক। এছাড়া এ প্রথম কোনো আন্তর্জাতিক অলিম্পিয়াডে অংশ নিয়ে দেশের অপর দুই প্রতিযোগী আরিফা আলম ও সাফা তাসনিমও ভালো নম্বর পেয়েছে। বাংলাদেশ দলের সর্বমোট পয়েন্ট ২৭। দলগত স্কোরে বাংলাদেশ দল ভারত, নেদারল্যান্ডসের মতো অনেক দেশের চেয়ে এগিয়ে।
এ বিজয়ে রায়ান বিনতে মোস্তফা অমির শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নাটোর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মতিন অমিকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।
জেলা প্রশাসকের দপ্তরে ক্রেস্ট ও ফুলের শুভেচ্ছা প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট রহিমা খাতুন, নেজারত ডেপুটি কালেক্টর জুয়েল ইসলাম এবং অমি’র মা নাটোর সিটি কলেজের প্রভাষক তহমিনা খাতুন ও নানা নাটোরের জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের সাবেক প্রধান সহকারী সিদ্দিকুর রহমান।

অন্যান্য সংবাদ
- Advertisment -spot_img
bn Bengali
X
%d bloggers like this: