“বঙ্গমাতা ছিলেন দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ, রাজনীতি সচেতন মহীয়সী নারী” মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা

0
33
কাজী ফায়সাল আহমেদ, ঢাকা,  মঙ্গলবার, ৩১ আগস্ট ২০২১ :
মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেছেন, ‘বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব ছিলেন বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জনের লক্ষ্যে প্রতিটি পদক্ষেপ ও কার্যক্রম বাস্তবায়নে জাতির পিতার নেপথ্য শক্তি, সাহস এবং বিচক্ষণ পরামর্শক। তিনি রাজনীতির সাথে সরাসরি জড়িত না থেকেও বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক সাফল্যে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখেন। বঙ্গমাতা ছিলেন দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ, রাজনীতি সচেতন এক মহীয়সী নারী। বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক দার্শনিক ও পথ প্রদর্শক বঙ্গমাতা ছিলেন সংকটে সংগ্রামে জাতির পিতার নির্ভিক সহযাত্রী’।
প্রতিমন্ত্রী  বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে যেসকল মামলা হয়েছিল তা বঙ্গমাতা নিজেই পরিচালনা করতেন। কঠিন সময়ে সংসার পরিচালনা, সন্তানদের লেখাপড়া ও সকল দায়িত্ব পালন করেছেন ধৈর্য এবং সাহসের সাথে। দল পরিচালনার সাথে কর্মী ও কারাবন্দি নেতাদের পরিবারের আর্থিক সহায়তা করতেন’।
প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকায় বেইলি রোডে অফিসার্স ক্লাবে অফিসার্স ক্লাবের মহিলা কমিটি আয়োজিত ‘বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯১তম জন্মবার্ষিকী’ স্মরণে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ঢাকা অফিসার্স ক্লাবের মহিলা কমিটির সভানেত্রী  ও সাবেক মহিলা ও শিশু বিষয়ক এবং তথ্য সচিব কামরুন নাহার।  বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অফিসার্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও অতিরিক্ত সচিব মেজবাহ উদ্দিন। আরো উপস্থিত ছিলেন মহিলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ড. ফেরদৌসী খানসহ অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।
প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেন, এ বছর থেকে  বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী জাতীয়ভাবে উদ্‌যাপন করা হচ্ছে। আটটি ক্ষেত্রে প্রদান করা হচ্ছে বঙ্গমাতা পদক। যার মাধ্যমে নতুন প্রজন্ম বঙ্গমাতার সংগ্রামী জীবন, আত্মত্যাগ, সাহসিকতা, দেশপ্রেম, মহান মুক্তিযুদ্ধে তাঁর অপরিসীম অবদান এবং স্বাধীনতা সংগ্রামের অজানা তথ্য জানতে পারবে।

Leave a Reply