বুধবার, মে ১৯, ২০২১
spot_imgspot_imgspot_imgspot_img
বুধবার, মে ১৯, ২০২১
Homeবিজ্ঞান ও প্রযুক্তিসাড়ে চার হাজার ইউনিয়ন পরিষদকে হাইস্পীড ব্রডব্যান্ড কানেকক্টিভিটির আওতায় আনা হবে :...

সাড়ে চার হাজার ইউনিয়ন পরিষদকে হাইস্পীড ব্রডব্যান্ড কানেকক্টিভিটির আওতায় আনা হবে : পলক

২০২১ সালের মধ্যে দেশের সাড়ে চার হাজার ইউনিয়ন পরিষদকে ফাইবার অপটিক হাইস্পীড ব্রডব্যান্ড কানেকটিভিটির আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ।
তিনি অনলাইনে যুক্ত হয়ে আজ টেলিযোগাযোগ সুবিধা বঞ্চিত এলাকাসমুহের ব্রডব্যান্ড কানেকটিভিটি স্থাপন প্রকল্পের ‘ ইউনিয়ন পর্যায় ব্রডব্যান্ড কানেকটিভিটি স্থাপন’ কাজের উদ্ভোধন উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের যুগে ব্যবসা-বানিজ্য, শিক্ষা ও স্বাস্থ্যসহ সকল কার্যক্রম ইন্টারনেট নির্ভর হয়ে উঠেছে।
তিনি বলেন, বর্তমানে দেশে প্রায় তিন হাজার ৮শ’ ইউনিয়নে ইতোমধ্যে হাইস্পিড ফাইবার অপটিক্যাল ক্যাবল কানেকটিভিটি পৌঁছে গেছে।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, আইসিটি বিভাগের কানেক্টেড বাংলাদেশ প্রকল্পের মাধ্যমে দেশের দুর্গম এলাকার ৬১৭টি ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে হাইস্পিড ইন্টারনেট কানেকক্টিভিটি পৌঁছে দেয়া হবে এবং চলতি বছরে মূল অবকাঠামো তৈরির কাজ শেষ হবে।
পলক বলেন, দেশে বিটিসিএলের মাধ্যমে ১২শ’ বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের ইনফো সরকার ৩ প্রকল্পের আওতায় ২ হাজার ৬শ’ ইউনিয়ন ফাইবার অপটিক্যালের মাধ্যমে ইন্টারনেট সংযোগ দেয়া হয়েছে।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের নির্দেশ অনুযায়ী যে সকল ইউনিয়ন বাকী থাকবে সে সকল ইউনিয়নে, পাহাড় ও দ্বীপসহ যেসকল স্থানে ফাইবার অপটিক্যাল ক্যাবল নেয়া যাচ্ছে না, সে স্থানসমুহে বঙ্গবন্ধু ১ স্যাটেলাইটের মাধ্যমে যুক্ত করা হবে।
তিনি আরো বলেন, এতে মানুষ গ্রামে বসেই শহরের সুযোগ-সুবিধা ভোগ করতে এবং দুর্গম এলাকার তরুন প্রজন্ম ফ্রিল্যান্সার হিসেবে নিজেদেরকে উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে পারবে।
পলক বলেন, দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে তোলার লক্ষ্যে প্রত্যেকটি সংসদীয় এলাকায় একটি করে ‘ স্কুল অব ফিউচার’ মডেল স্কুল স্থাপন করা হবে। যেখানে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি, শিক্ষকদের উপস্থিতি, ক্লাসে তাদের উপস্থিত হওয়া ও তাদের কোর্স ক্যারিকুলাম সহ সব কিছু অনলাইনে থাকবে।
তিনি বলেন, এছাড়াও ‘ স্কুল অব ফিউচার’ ল্যাবে তারা ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজি সম্পর্কে হাতে-কলমে শিক্ষা গ্রহণ করতে পারবে।
কাজের গুণগত মান বজায় রেখে জনগনকে ইন্টারনেট সেবা প্রদানে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবানও জানান তিনি।
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মো. মোতাহার হোসেন এমপি, রেজওয়ান আহম্মদ তৌফিক এমপি, পংকজ নাথ এমপি, মাহফুজুর রহমান এমপি, তানভীর শাকিল জয় এমপি, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর শিকদার ও বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেব।
পরে, প্রতিমন্ত্রী ইউনিয়ন পর্যায় ব্রডব্যান্ড কানেকক্টিভিটি স্থাপন কাজের উদ্ভোধন করেন।

অন্যান্য সংবাদ
- Advertisment -spot_img
bn Bengali
X
%d bloggers like this: